ডেস্ক: পাকিস্তানের নদীগুলির জল আটকে দিচ্ছে ভারত, আর সেই কারণেই ভারতের সমস্ত চ্যানেলের পাকিস্তানের সম্প্রচারের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করল পাক সুপ্রিমকোর্ট। এর আগে একাধিকবার ভারতীয় সিনেমা ও টিভি চ্যানেলের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল পাকিস্তান। সেই ধারা বজায় রেখে নিম্ন আদালতের রায়কে খারিজ করে নতুন রায় দিল সুপ্রিমকোর্ট।

ভারতের বিভিন্ন টিভি চ্যানেলের অনুষ্ঠান ভারতের পাশাপাশি ব্যাপক জনপ্রিয় পাকিস্তানে। অভিযোগ ছিল, ভারত হিমালয় থেকে উৎপত্তি হওয়া সিন্ধু নদীতে বাঁধ দিয়ে পাকিস্তানকে জল দিতে সমস্যা তৈরি করছে। যার জন্য বিপাকে পড়ছে পাকিস্তানের বহু কৃষিজমি। তাই ভারতকে বিপাকে ফেলতে নিষিদ্ধ করে দেওয়া হোক ভারতীয় টিভি চ্যানেল। সেই দাবিকে সমর্থন জানালো পাক সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি সাকিব নিসার। যদিও এই চ্যানেল বন্ধ করার বিপক্ষে এর আগে রায় দিয়েছিল লাহোর হাইকোর্ট। সেই রায়কে খারিজ করে দেয় সুপ্রিমকোর্ট।

উল্লেখ্য, পাকিস্তানের তরফে ভারতীয় চ্যানেল ও সিনেমা বন্ধ করা এই প্রথমবার নয়, এর আগে ১৯৬৫ সালে ইন্দো-পাক যুদ্ধের পর প্রথম ভারতীয় সিনেমার উপর জারি করা হয় নিষেধাজ্ঞা। ২০০৮ সালে যা তুলেও নেওয়া হয়। এরপর ২০১৬ সালে কাশ্মীরে উত্তেজনাময় পরিস্থিতির জেরে বন্ধ করে দেওয়া হয় সমস্ত ভারতীয় চ্যানেলের সম্প্রচার। তার ঠিক পর আরও একবার ভারতীয় চ্যানেলের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করল পাক আদালত। তবে জলবণ্টনের ক্ষেত্রে যে বেনিয়মের অভিযোগ পাকিস্তান ভারতের উপর তুলেছে তা সম্পূর্ণরুপে অস্বীকার করেছে ভারত সরকার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here