imran bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: পাকিস্তানের হয়ে চরবৃত্তি করছিলেন হাইকমিশনের দুই আধিকারিক। পাক ওই দুই কূটনীতিককে তাড়িয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে ভারত থেকে। এদেশে থেকে পাকিস্তানের গুপ্তচর সংস্থা আইএসআইয়ের কাছে একাধিক গোপন তথ্য সরবরাহ করছিলেন তারা। দিল্লি পুলিশের স্পেশ্যাল সেল করোলবাগ এলাকা থেকে আবিদ হুসেন (৪২) ও মহম্মদ তাহির (৪৪) নামে ওই দুই পাক আধিকারিককে রবিবার আটক করে। দিল্লি পুলিশের দাবি, অর্থ এবং আইফোনের বিনিময়ে এক ভারতীয় নাগরিকের কাছ থেকে রেলপথে সশস্ত্র বাহিনীর চলাচল সম্পর্কিত সংবেদনশীল নথি সংগ্রহ করছিলেন পাকি হাই কমিশনের এই আধিকারিকেরা। যদিও এই অভিযোগ সম্পূর্ণ অস্বীকার করেছে পাকিস্তান।

ভারতীয় বিদেশমন্ত্রক সূত্রে খবর, পাক হাইকমিশনের এই দুই অফিসারকে রবিবারই চরবৃত্তির অভিযোগে ‘অবাঞ্ছিত’ ঘোষণা করা হয়েছে। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তাঁদের দেশ ছেড়ে চলে যেতে বলা হয়েছে। দিল্লির এই সিদ্ধান্তে কড়া প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছে পাকিস্তান। সোমবার ভারতের ভারপ্রাপ্ত হাই কমিশনারকে সমন পাঠিয়ে, দিল্লির এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ করা হয়েছে তাদের তরফে। উল্লেখ্য, গোপন সূত্রে এই খবর পেয়ে নড়েচড়ে বসে নয়াদিল্লি। দুই আধিকারিককে পাকড়াও করে আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে ওই দুজনকে ভারত ছেড়ে চলে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এক বিবৃতি পেশ করে বলা হয়েছে, ওই দুই কর্মী যে কাজ করছেন তা তাদের পদের অপমান করে। যে উচ্চপদে তারা কাজ করছেন এই কাজ তার সঙ্গে বেমানান। তাই তাদেরকে অবাঞ্ছিত হিসাবে বিবেচিত করা হচ্ছে। এই প্রেক্ষিতে এই তাদের আগামী এক দিনের মধ্যেই দেশ ছাড়তে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

তাদের জেরা করেই সব তথ্য জানা গিয়েছে। তারা জানিয়েছে, এদেশে থেকেই তারা বহুদিন ধরে আইএসআই এর হয়ে কাজ করতো। এই কাজের জন্য তারা জাল পরিচয় পত্র বানিয়েছিল। তাদের কাছে ছিল, জাল পাসপোর্ট এবং আধার কার্ডও।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here