ডেস্ক: লাগাতার সীমান্তে গুলিবর্ষণ, সেনা মৃত্যুর ফলে দুই দেশের কূটনৈতিক সম্পর্ক সাপে নেউলে অবস্থায়। এহেন উত্তপ্ত পরিবেশের মাঝেই এবার চরম আকার নিল দুই দেশের সম্পর্ক। এবার ভারত থেকে নিজেদের রাষ্ট্রদূতকে ফিরিয়ে নিল পাকিস্তান। বৃহস্পতিবার দিল্লিতে নিযুক্ত পাক হাইকমিশনার সোহেল মাহমুদকে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে পাকিস্তানে।

বিদেশ মন্ত্রকের তরফে জানা গিয়েছে, ভারতে নিযুক্ত পাকিস্তানি রাষ্ট্রদূতরা হেনস্থার শিকার হচ্ছেন। ভারতের বীরুধে এমনই অভিযোগে তুলে সোহেল মাহমুদকে ফিরিয়ে নিয়ে যায় ইসলামাবাদ। তবে পাকিস্তানের এই অভিযোগ সম্পূর্ণরুপে উড়িয়ে দিয়েছে ভারত। নয়াদিল্লির তরফে দাবি করা হয়েছে, পাকিস্তানের কূটনীতিকরা ভারতে কোনও হেনস্থার শিকার হয়নি উল্টে পাকিস্তানে হেনস্থার শিকার হচ্ছে ভারতীয় রাষ্ট্রদূত।

পাকিস্তানের তরফে কিছুদিন আগেই দাবি করা হয়েছিল, ভারতে যে পাকিস্তানি হাইকমিশনার হেনস্থার শিকার হয়েছেন তাঁর প্রমান রয়েছে পাকিস্তানের কাছে। কিছুদিন আগে একদল যুবক ধাওয়া করে পাকিস্তানি হাইকমিশনারের গাড়ি। রাস্তায় অকথ্য ভাষায় রাষ্ট্রদূতকে গালিগালাজও করে দুষ্কৃতীরা। শুধু তাই নয়, ভারতে নিযুক্ত কূটনীতিবীদদের সন্তানরা স্কুলে গেলে তাদেরকেও হেনস্থার সম্মুখীন হতে হয়। এই ঘটনার ভিডিও ও ছবিও দেখানো হয় পাকিস্তানের টেলিভিশন চ্যানেলগুলিতে। এর পরিপ্রেক্ষিতে পাকিস্তানে নিযুক্ত ভারতীয় রাষ্ট্রদূত জেপি সিংকে তলব করে পাকিস্তান বিদেশমন্ত্রক। এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানায় পাকিস্তান। এরপরেই বৃহস্পতিবার পাক হাইকমিশনার সোহেল মাহমুদকে ফিরিয়ে নেয় পাকিস্তান।

তবে ইসলামাবাদের এই অভিযোগ সম্পূর্ণ খন্ডন করে ভারতের তরফ থেকে বলা হয়েছে, ‘ভারত সদা সচেষ্ট থাকে বিদেশী কূটনীতিবিদদের নিরাপদে ও সুস্থ ভাবে কাজ করার পরিবেশ তৈরির জন্য।’ উল্টে ভারতের তরফে দাবি করা হয়, ‘পাকিস্তানে হেনস্থার শিকার হয়েছেন ভারতীয় কূটনীতিবিদরা। আর সেটা সবচেয়ে বেশী হয়েছে গত বছর। যখন ভারত ও পাকিস্তানের জম্মু কাশ্মীর সীমান্তে নিত্যদিন সংঘর্ষ বিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করে গুলি ছুঁড়ত পাক সেনারা’। ভারতের তরফে আরও বলা হয়েছে, ‘এর আগে পাকিস্তানে ভারতীয় কূটনীতিবিদদের বাড়িতে হামলা চালানো হয়েছে। ইলেকট্রিক সাপ্লাই বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে, এমনকি ল্যাপটপও চুরি করে নেওয়া হয় ভারতীয় কূটনীতিকের। কিন্তু যখনই এই ধরনের কোনও সমস্যা তৈরি হয় নিজেদের মধ্যে কূটনৈতিক আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা মেটায় ভারত। এভাবে মিডিয়ার সামনে হম্বিতম্বি করে না।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here