লাদাখের ওপারে সামরিক সক্রিয়তা শুরু পাকিস্তানের, ফের যুদ্ধের উস্কানি পড়শিদের

0
352

মহানগর ওয়েবডেস্ক: জম্মু কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বিলোপের পর থেকেই রাগে লাল হয়ে রয়েছে পাকিস্তান। ইমরান খান যে কখন কী করবেন বোঝা দায়। তবে ইসলামাবাদ ক্রমেই যা সংকেত দেওয়া শুরু করেছে তাতে যুদ্ধের আশঙ্কা নতুন করে মাথাচারা দিচ্ছে। জানা যাচ্ছে, লাদাখের ওপারে স্কর্দু ঘাঁটিতে বিমানহানার সরঞ্জাম মজুত করছে পাকিস্তান বায়ুসেনা। ইমরান খান নিজে যুদ্ধ পরিস্থিতির আশঙ্কা করলেও ইসলামবাদই প্রথম সামরিক সক্রিয়তার পথে হাঁটল। সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে জানানো হয়েছে, ‘কেন্দ্রশাসিত লাদাখের ওপারে স্ক্রর্দু বিমান ঘাঁটিতে সামরিক সরঞ্জাম আনার কাজ শুরু হয়েছে।’

এর পাশাপাশি এক পাক সাংবাদিকের টুইট জল্পনা আরও বাড়িয়েছে। নিজের টুইটারে পাক সাংবাদিক হামিদ মির দাবি করেছেন, অতিরিক্ত সেনার পাশাপাশি ভারী যুদ্ধাস্ত্রবাহী বিমান ও কপ্টারে করে সীমান্তে ট্যাংক মোতায়েন করছে পাকিস্তান। পাক অধিকৃত কাশ্মীর থেকে বেশ কিছু যুবক নাকি তাঁকে ফোনের মাধ্যমে একথা জানিয়েছে বলে দাবি করেন তিনি। ফলে পাকিস্তান যে ক্রমশ যুদ্ধের দিকেই এগোচ্ছে তা ক্রমশ দিনের আলোর মতোই স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে।


অন্যদিকে এএনআই সূত্রের কথা উদ্ধৃত করে জানিয়েছেন, ‘শনিবার পাকিস্তান বায়ুসেনার তিনটি সি-১৩০ বিমান কেন্দ্রশাসিত লাদাখের ওপারে স্কর্দু বিমান ঘাঁটিতে সরঞ্জাম আনতে ব্যবহার করা হয়। ভারতীয় সংস্থাগুলি সীমান্তবর্তী অঞ্চলে পাকিস্তানিদের চলাফেরার উপর নজর রাখছে। মনে করা হচ্ছে, যে কোনও সময়ে ভারতের ওপর বিমান হানার জন্য আগাম প্রস্তুতি সেরে রাখছে পাকিস্তান। তবে এখনই এই নিয়ে ভারতের তরফে কোনও পদক্ষেপের কথা জানানো হয়নি। গোয়েন্দা সংস্থাগুলি পাকিস্তানের বায়ুসেনার গতিবিধির উপর কড়া নজর রাখছে। এহেন পরিস্থিতিতে কোনও পরমাণু শক্তিধর দেশই যুদ্ধ পরিস্থিতি চাইবে না। কিন্তু ছোটখাটো সংঘাতের সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here