ভয় দেখিয়ে বিজেপিতে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল, তৃণমূলে ফিরে বললেন পঞ্চায়েত প্রধান

0
603

নিজস্ব প্রতিবেদক, বালুরঘাট: লোকসভা নির্বাচনে কেন্দ্রে ক্ষমতায় ফিরেছে বিজেপি, রাজ্যেও ১৮ টি আসন ছিনিয়ে প্রধান বিরোধী হিসেবে খাতা খুলেছে গেরুয়ারা৷ নির্বাচনের আগেই বিজেপি নেতৃত্ব দাবি করেছিল ফল বেরোতেই বিরোধী শিবির থেকে গেরুয়া আবীর মাখবে অনেকেই৷ বিজেপি নেতৃত্বের দাবি মিলেও গিয়েছে৷ ঘাসফুলের কর্মী থেকে কাউন্সিলর এমনকি বিধায়করাও গিয়ে ভিঁড় করেছেন গেুরুয়া শিবিরে৷ তবে যতই ঘাসফুল ছেড়ে বিজেপিতে গিয়ে দল ভারি করুক তৃণমূলীরা, এমন অনেকেই আছেন যারা আবার বিজেপি ছেড়ে শাসকদলে ফিরেছেন৷ যার কারণ হিসেবে উঠে এসেছে বিজেপির একটি অংশের গেরুয়ায় যোগদানকারি তৃণমূলীদের গ্রহণ না পারা৷ যে কারণে দলের অন্দরে অসন্তোষ দেখা দিয়েছে৷ যার বড় উদাহরণ লাভপুরের বিধায়ক মণিরুল ইসলাম৷ তিনিও দল বদলে বিজেপিতে গিয়েছিলেন ঠিকই, কিন্তু বিজেপির একটি অংশ তাকে মেনে না নেওয়ায় ফের ঘাসফুলেই তার কামব্যাক ঘটেছে৷

বিজেপি থেকে পুনরায় পুরোনো দল অর্থাত তৃণমূলে ফিরে অনেক নেতা-নেতৃরা দাবি করেছেন তাদেরকে ভয় দেখিয়ে গেরুয়া শিবিরে যোগদান করানো হয়েছিল৷ যদিও এই দাবি কতটা সত্যি তা নিয়ে সংশয় রয়েই গিয়েছে৷ এরকমই আরেকজনের নামও উঠে আসছে এই মূহুর্তে, যিনি তৃণমূল ছেড়ে পদ্মশিবিরের হাত ধরেছিলেন৷ লোকসভা নির্বাচনে বালুরঘাট কেন্দ্র বিজেপির দখলে চলে যাওয়ায় বালুরঘাট ব্লকের বোয়ালদা গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান মৌসুমি রায় বিজেপিতে যোগ দেন৷ আর এক সপ্তাহ যেতে না যেতেই ফের পুরনো দলমুখো হন তিনি৷

বুধবার তৃণমূলের জেলা সভাপতি অর্পিতা ঘোষের কার্যালয়ে গিয়ে জেলা সভাপতির হাত থেকে পুনরায় দলীয় পতাকা তুলে নেন মৌসুমী রায়। বৃহস্পতিবার থেকে আরও একবার তৃণমূল কংগ্রেসের বোর্ডের প্রধান হিসাবে বোয়ালদার গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান হিসাবে দ্বায়িত্বভার গ্রহণ করবেন তিনি, এমনটাই জানা গিয়েছে। এদিন এই যোগদান কর্মসূচিতে জেলা তৃণমূল সভাপতি অর্পিতা ঘোষ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন টাউন সভাপতি সুভাষ চাকী, জেলা তৃণমূল কংগ্রেস নেতা সোনা পাল সহ অন্যান্য নেতৃত্ববৃন্দ। মৌসুমী রায় বলেন, বিজেপি তাকে জোর করে ভয় দেখিয়ে তাদের দলে নিয়ে গিয়েছিলো। তাই তিনি তার অবস্থার পরিবর্তন করে আবার তৃণমূলে ফিরে এলেন। বৃহস্পতিবার তিনি পুনরায় বোয়ালদার গ্রাম পঞ্চায়েত অফিসে কাজে যোগদান করবেন। জেলা সভাপতি অর্পিতা ঘোষ জানান, মৌসুমি তার ভুল বুঝতে পেরে তার সঙ্গে যোগাযোগ করে, তিনি তাকে আবার বালুরঘাটে ফিরে আসতে বলেন। এদিন অর্পিতা ফিরে এলে তার হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here