ছবি- প্রতীকী

ডেস্ক: সোমবারের পঞ্চায়েত নির্বাচনের রক্তাক্ত চিত্রটা আগেই দেখেছে বাংলা। কোথাও কোথাও চলেছে বুথ দখল করে অবাধ ছাপ্পা ভোট। সবমিলিয়ে পঞ্চায়েত নির্বাচনে ব্যাপক হিংসার জেরে আগামীকাল সম্ভবত রাজ্যের ৫০০ বুথে ফের পুনর্নির্বাচন করতে চলেছে রাজ্য নির্বাচন কমিশন।

কমিশনের সুত্রে জানা যাচ্ছে, সোমবার পঞ্চায়েত নির্বাচনের ভোটপর্ব নিয়ে ১ হাজারেরও বেশি অভিযোগ জমা পড়েছে কমিশনের কাছে। সমস্ত অভিযোগ খতিয়ে দেখেই নতুন করে ভোট গ্রহণের সিদ্ধান্ত নেবে নির্বাচন কমিশন। এই প্রসঙ্গে আলোচনার জন্য মঙ্গলবার সকালেই একদফা বৈঠকে বসে নির্বাচন কমিশন। সেখানে জেলা থেকে আসা রিপোর্টগুলি নিয়ে আলোচনা করা হয়। তবে জানা যাচ্ছে, কোচবিহারের ৫০, মুর্শিদাবাদের ১০, নদিয়ার ৬০, বীরভূমের ১০, পশ্চিম মেদিনীপুরের অন্তত ৩০ টি সহ রাজ্যের প্রায় ৫০০ বুথে পুনর্নির্বাচনের সম্ভাবনা রয়েছে। তবে বিকেলের অপর একটি বৈঠকের পর কোথায় কোথায় ফের নির্বাচন হবে সে বিষয়ে চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে নির্বাচন কমিশন।

উল্লেখ্য, সোমবার সকাল হতে না হতেই একের পর এক ভোটগ্রহণকে কেন্দ্র করে হিংসার খবর আসতে থাকে বিভিন্ন জেলা থেকে। কোথাও ছাপ্পা ভোট তো কোথাও ব্যালট বক্সে আগুন। বুথ দখল থেকে শুরু করে হিংসার ঘটনায় রক্তাক্ত হয়েছে বাংলা। সরকারি তথ্য অনুযায়ী হিংসার জেরে পঞ্চায়েত নির্বাচনে মৃতের সংখ্যা ১৮। যার মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ১০ জন তৃণমূল সমর্থকের এবং ৮ জন বিজেপি সমর্থকের। পুরো ঘটনার জেরে মঙ্গলবারের বৈঠক পর নির্বাচন কমিশন সিদ্ধান্ত নেবে কোন কোন জেলার নতুন করে হবে নির্বাচন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here