ডেস্ক: তাঁকে বলা হয়, মহেন্দ্র সিং ধোনির উত্তরসূরি। যদিও ভারতীয় দলের হয়ে নিজেকে কখনই মাহির ধারেকাছেও নিয়ে যেতে পারেন নি। সে কিপিংয়ের ক্ষেত্রেই হোক বা ব্যাটিংয়ের ক্ষেত্রে। কিন্তু রবিবার সেই মাহিরই রেকর্ড ভেঙে সমালোচকদের মুখ কিছুটা হলেও বন্ধ করলেন তরুণ ভারতীয় তারকা ঋষভ পন্থ। আইপিএল ইতিহাসে মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে সবচেয়ে কম বলে হাফ সেঞ্চুরি করার নজির গড়লেন তিনি। মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে ১৮ বলে ৫০ রান করেন তিনি। তাঁর অপরাজিত ৭৮ (২৭ বল) রানের সুবাদে দিল্লি ক্যাপিটালস নির্ধারিত ২০ করে ২১৩/৬ রান। এর আগে আইপিএলে মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে দ্রুততম হাফ সেঞ্চুরির নজির ছিল মাহির। ২০১২ সালে ২০ বলে অর্ধ শতরান করেছিলেন তিনি।

কিছুদিন আগেই ঘরের মাঠে শেষ হওয়া অস্ট্রেলিয়া সিরিজের শেষ দুটি ওয়ানডে ম্যাচে ধোনির বদলে দলে সুযোগ পেয়েছিলেন পন্থ। কিন্তু সেই দুই ম্যাচে ব্যাটে – বলে হতাশ করেছিলেন তিনি। অবশেষে আইপিএলের প্রথম ম্যাচেই নিজের নামের প্রতি সুবিচার করলেন তিনি। মুম্বইয়ের স্টার বোলার যশপ্রীত বুমরাহ হোক বা নবাগত রশিক সালাম, কাউকেই রেয়াত করেন নি তিনি। বিধ্বংসী পন্থকে থামানোর কোনও উপায়ই ছিল না মুম্বই ইন্ডিয়ান্স বোলারদের কাছে।

 

২০১৮ সালে আইপিএলে খুব হতাশাজনক পারফর্ম করেছিল দিল্লি। তবুও দুরন্ত খেলেছিলেন পন্থ। ১৪টি ম্যাচে করেছিলেন ৬৮৪ রান। সঙ্গে খেলেছিলেন ১২৮ রানের একটি অনবদ্য ইনিংস। দিল্লি দলে পন্টিং ও সৌরভ গাঙ্গুলির অন্তর্ভুক্তির ফলে আদতে লাভবান পন্থের মতো তরুণরা হবেন, তা বলাই বাহুল্য।

যদিও আইপিএলের ইতিহাসে দ্রুততম হাফ সেঞ্চুরির মালিক লোকেশ রাহুল। ২০১৮ সালে ১৪ বলে পঞ্চাশ রান করেছিলেন তিনি। এছাড়া সুনীল নারিন ও ইউসুফ পাঠানের ১৫ বলে হাফ সেঞ্চুরির নজির আছে। একবার ১৬ বলে ৫০ রান করেছিলেন সুরেশ রায়না। তবে এদিনের পন্থের ইনিংসটা যেন একটু বেশিই স্পেশাল। তাঁর এই দুরন্ত ইনিংসের সামনে ফিকে হয়ে গেল যুবরাজ সিংয়ের অনবদ্য ৩৫ বলে ৫৩ রানের ইনিংস। ম্যাচটিতে ৩৭ রানে মুম্বইকে হারায় দিল্লি।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here