নিজস্ব প্রতিবেদক, বারাসাত: সদ্যোজাত কন্যাসন্তানকে খুনের পর দেহ পুঁতে দাওয়ার অভিযোগ উঠল মা, বাবার বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার দক্ষিণ বারাসতে। ঘটনার কথা জানা জানি হতেই বাড়িতে তালা ঝুলিয়ে পলাতক ওই শিশুটির বাবা,মা।

জানা গিয়েছে, দক্ষিণ বারাসতের উত্তর কালিকাপুর গ্রামের বাসিন্দা সঞ্জয় মণ্ডল এবং মাধবী মণ্ডলের বছর দুয়েকের একটি কন্যাসন্তান আছে। পাশাপাশি দিন আঠারো আগে মাধবীদেবী আবারো একটি কন্যা সন্তানের জন্ম দেয়। জন্মের কয়েক দিন পরই শিশুটির নিউমোনিয়া হয়। নিউমোনিয়াতে ভুগে দিন কয়েক পরই মৃত্যু হয় সদ্যোজাতের।কিন্তু ওই দম্পতির বিরুদ্ধে অভিযোগ পর পর কন্যাসন্তান হওয়ায় দম্পতি নিজে হাতে কার্যত খুন করে সদ্যোজাতকে। কেননা নিউমোনিয়ার সঠিক চিকিত্সা করানো হয়নি ওই শিশুটির। যার ফলে সঠিক চিকিৎসার অভাবে মৃত্যু হয় ওই শিশুটির। পাসাপাশি এও জানা যায়, ঘটনার কথা যাতে কেউ টের না পায় , তাই তড়িঘড়ি বাড়ির কাছে নিজের সন্তানের দেহ পুঁতে দেয় সঞ্জয় এবং তাঁর স্ত্রী।

অন্যদিকে বেশ কিছু দিন ধরে ওই বাড়িতে কোন শিশুর কান্নার আওয়াজ শুনতে পাড়ছিল না এলাকাবাসীরা। পাশাপাশি খাল পাড়ের এলাকা থেকে পচা দুর্গন্ধ বেরতে থাকলে সন্দেহ হয় স্থানীয় মানুষদের। এরপরই তারা সঞ্জয় এবং তাঁর স্ত্রীকে চেপে ধরেন। প্রথমে অবশ্য কিছু বলতে চায়নি ওই দম্পতি। কিন্তু পরে ঘটনার কথা স্বীকার করে নেন ওই দম্পতি। সঙ্গে সঙ্গে জয়নগর থানায় খবর দেয় স্থানীয়রা। পুলিশ এসে সদ্যোজাতের দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here