bengali news

Highlights

  • ‘সরকারি সম্পত্তি নষ্ট করা ও জনগণের টাকায় সিএএ-এনআরসি লাগু করা দুটো ব্যাপার একই ‘সিটিজেন্স স্পিক’ অনুষ্ঠানে জানালেন পরমব্রত
  • এনআরসি-সিএএ ইস্যু নিয়ে এই প্রথম মুখ খুলতে দেখা গেল অভিনেতা পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়কে
  • শনিবার অপর্ণা সেনের উদ্যোগে ‘সিটিজেন্স স্পিক’ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কংগ্রেস সাংসদ শশী থারুর, গায়ক অনুপম রায়, রূপম ইসলাম

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ‘সরকারি সম্পত্তি নষ্ট করা ও জনগণের টাকায় সিএএ-এনআরসি লাগু করা দুটো ব্যাপার একই’, বইমেলা প্রাঙ্গনে এমনটাই বললেন অভিনেতা পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়। গত শনিবার কলকাতা বইমেলাতে একটি বিতর্কসভার আয়োজন করা হয়েছিল। ওই বিতর্কসভার মূল উদ্যোক্তা ছিলেন অভিনেত্রী-পরিচালক অপর্ণা সেন। তাঁর উদ্যোগেই বইমেলার প্রাঙ্গনে ‘সিটিজেন্স স্পিক’- অনুষ্ঠানের জন্য উপস্থতি হয়েছিলেন বেশ কিছু বিশিষ্ট ব্যক্তি।

যাদের মধ্যে ওই মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন পরমব্রত। আর সেই অনুষ্ঠানমঞ্চ থেকেই কেন্দ্রীয় সরকারের এনআরসি-সিএএ বিরোধিতা করে অভিনেতা জানান, ”এই বিষয়টা নিয়ে যদি এখনই না আমরা সরব হই, তাহলে কখন হব? প্রয়োজন হলে গলার স্বর আরও চড়া করতে হবে। আন্দোলনে নেমে যে সরকারি সম্পত্তি নষ্ট করা হয়েছে তাঁর বিরুদ্ধেও পদক্ষেপ করা হয়েছে। এই বিষয়টি নিয়ে আমার একটা নির্দিষ্ট মতামত রয়েছে। এদিকে এনআরসি-সিএএ করতেও তো কয়েক লক্ষ টাকা খরচ হয়েছে, এইগুলোওতো জনগণের করের টাকা। আন্দোলনের নামে বাস পোড়ানো অত্যন্ত নিন্দনীয় ঘটনা। কিন্তু আমাদের এটাও মনে রাখতে হবে এনআরসি-সিএএ লাগু করতেও তো প্রচুর খরচ হচ্ছে, সেটা তো জনগণের সম্পত্তি।”

অভিনেতা-পরিচালক গতকাল আরও জানান, ”শুধুমাত্র একটি নির্দিষ্ট ধর্মের ভিত্তিতে কেন্দ্রীয় সরকার এসব করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কিন্তু যে নির্বাচনে তারা জয়ী হয়েছে, সেইখানেও তো নির্দিষ্ট একটি ধর্মের ভোটও রয়েছে। তাঁরাও এতদিন ধরে কর দিয়ে এসেছেন। দেশের নাগরিক হওয়ার পরিচয় দিয়েছেন। কিন্তু এখন তাঁদের ভাবতে হচ্ছে আদৌ তারা এইদেশের নাগরিক কিনা? আবার কখনও বলা হচ্ছে নাগরিক হতে গেলে বিশেষ নথি জমা দিতে হবে। নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত এদেশে থাকতে হবে। কিন্তু তাতেও তো একটা অনিশ্চয়তা রয়েই যাচ্ছে।”

তবে পরমব্রত আরও জানিয়েছেন সরকারি সম্পত্তি নষ্ট করে নয় গণতান্ত্রিক উপায়ে এই আইনের বিরোধিতা করতে হবে। দেশজুড়ে এনআরসি-সিএএ নিয়ে বুদ্ধিজীবী থেকে শুরু করে একাধিক বিশিষ্ট জনেরা পথে নেমেছেন। কেউ কেউ সাধারণ মানুষের সঙ্গে পায়ে হেঁটে মিছিলও করেছেন। যদিও এনআরসি-সিএএ ইস্যু নিয়ে এই প্রথম মুখ খুলতে দেখা গেল অভিনেতা পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়কে। গত শনিবার অপর্ণা সেনের উদ্যোগে ‘সিটিজেন্স স্পিক’ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কংগ্রেস সাংসদ শশী থারুর, গায়ক অনুপম রায়, রূপম ইসলাম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here