ডেস্ক: বেঙ্গালুরুর সাংবাদিক গৌরি লঙ্কেশের হত্যা মামলার জট ছাড়াতে সক্ষম হয়েছে বলে দাবি করেছে এই মামলায় নিয়োজিত বিশেষ তদন্তকারী দল। তাদের দাবি, যে ব্যক্তি গৌরী লঙ্কেশকে নিজের বাড়ির সামনে তিন রাউন্ড গুলি মেরে হত্যা করেছিল, তাঁকে গ্রেফতার করে নিয়েছে তারা। একই সঙ্গে অভিযুক্ত নিজের দোষ স্বীকার করে নিয়েছে বলেও জানা গিয়েছে। সূত্রের খবর, উত্তর কর্ণাটকের বিজয়পুরা নামক এলাকা থেকে পরশুরাম বাঘমারে নামক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে স্পেশাল ইনভেস্টিগেশন টিম।

২০১৭ সালের ৫ সেপ্টেম্বর রাতে নিজের গৌরী লঙ্কেশকে হত্যা করার সময় পরশুরামের নাকি জানাই ছিল না সে কাকে হত্যা করতে যাচ্ছে। প্রথম সারির একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের তথ্য অনুসারে, ২৬ বছরের এই আততায়ীকে বলা হয়েছিল নিজের ধর্ম বাঁচাতে তাঁকে একজনকে হত্যা করতে হবে। কথা মতো সেই কাজ করে বাঘমারে। কিন্তু এখন তাঁর মনে হচ্ছে, একজন মহিলাকে এভাবে হত্যা করা ঠিক হয়নি। উল্লেখ্য, গৌরী লঙ্কেশকে লক্ষ্য করে চারটি বুলেট ছোঁড়ে বাঘমার, যার মধ্যে তিনটি বুকে লেগে মৃত্যু হয় তাঁর।

তদন্তকারী দলকে অভিযুক্ত বাঘমারে আরও জানিয়েছে, ৩ সেপ্টেম্বর তাঁকে বেঙ্গালুরু এনে এয়ারগানে ট্রেনিং দেওয়া হয়েছিল। মারার আগে পর্যন্ত সে জানত না কাকে মারতে যাচ্ছে। কারণ অপরিচিত এক বাইক সওয়ার তাঁকে নিয়ে যেত। ৪ তারিখই গৌরীকে হত্যা করার পরিকল্পনা করেছিল দুষ্কৃতীরা। কিন্তু সেদিন গৌরী আগেভাগে ঘরে ঢুকে যাওয়ায় তা সম্ভব হয়নি। এরপর ৫ তারিখ কাজ থেকে ফেরার সময়ই গৌরীকে হত্যা করে বলে স্বীকার করেছে বাঘমারে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here