ডেস্ক: রবিবার রানিগঞ্জে রামনবমীর মিছিলকে ঘিরে উত্তপ্ত পরিস্থিতি তৈরি হওয়ার পর, এদিন সাংবাদিক বৈঠক করলেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। এদিন পার্থবাবু বলেন, খুব শীঘ্রই নিয়ন্ত্রণে আসবে রানিগঞ্জের পরিস্থিতি। আইনশৃঙ্খলা কেউ বিঘ্নিত করার চেষ্টা করলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে তাঁর বিরুদ্ধে। যে কোনও বিষয়ে রাজ্যটাকে বিশৃঙ্খল করার চেষ্টা চালাচ্ছে বিজেপি।’

রামনবমীর শোভাযাত্রা চলাকালীন হিংসার ঘটনা নিয়ে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের কাছে রিপোর্ট তলব করেছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। রানিগঞ্জের হিংসা ও অশান্তি থামাতে আধাসেনা বাহিনী দিয়ে সহায়তার প্রস্তাব দিয়েছে কেন্দ্র। কিন্তু নবান্নের তরফে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে আধাসেনা বাহিনীর প্রয়োজন নেই। সে প্রসঙ্গে এদিন পার্থবাবু বলেন, ‘কেন্দ্র অযথা উদ্বিগ্নতা দেখাচ্ছে। বর্তমানে পরিস্থিতি কিছুটা হলেও নিয়ন্ত্রণে। রাজ্য পুলিশ খুব ভালো কাজ করছে। খুব শীঘ্রই নিয়ন্ত্রণে আসবে রানিগঞ্জের পরিস্থিতি।’ অন্যদিকে, পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে রানিগঞ্জ যাওয়ার কথা ছিল রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠির। কিন্তু সূত্রের খবর, সরকারের তরফে রাজ্যপালের সেই যাত্রা আটকে দেওয়া হয়। এই প্রসঙ্গে পার্থবাবু বলেন, ‘রাজ্যপালের ওখানে যাওয়ার কোনও খবর আমাদের কাছে নেই। তবে উনি যদি ওখানে যেতে চান সেক্ষেত্রে ওনাকে বলব পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসুক তারপর যেন ওখানে যান।’

একদিকে যখন পার্থ চট্টোপাধ্যায় সাংবাদিক সম্মেলন করছেন, অন্যদিকে তখন সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে একের পর এক তোপ দাগেন মুকুলবাবু। তাঁর কথায়, ‘রাজ্যে একের পর এক অশান্তি চলছে। রামনবমী একটি পরিকল্পিত সন্ত্রাস। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রীর কোনও ভ্রূক্ষেপ নেই, উনি তৃতীয় ফ্রন্ট গড়তে এবং প্রধানমন্ত্রী হওয়ার অলীক কল্পনা নিয়ে দিল্লি চলে গেলেন। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী একজন প্রশাসনিক প্রধান হয়েও তাঁর নিজের দায়িত্ব পালন করছেন না।’

অন্যদিকে, আজও খুব একটা স্বাভাবিক নয় রানিগঞ্জের পরিস্থিতি। বুধবার আসানসোলের রেল স্টেশন সংলগ্ন বেশ কিছু এলাকায় এদিন নতুন করে অশান্তি ছড়ায়। একটি গুজবকে কেন্দ্র করে আসানসোল স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় ব্যাপক অশান্তি ছড়ায়। বেশ কয়েকটি বাড়িতে ভাঙচুর চালিয়ে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। পরিস্থিতি সামাল দিতে ওই এলাকায় পৌঁছয় বিশাল পুলিশ বাহিনী। ঘটনার জেরে গুরুতর আহত হয়েছেন এক পুলিশকর্মীও। ঘটনার নতুন করে ব্যাপক আতঙ্ক ছড়িয়েছে ওই এলাকায়। জানা গিয়েছে, রানিগঞ্জের পরিস্থিতি সামাল দিতে সিদ্ধিনাথ গুপ্তা ও জাভেদ সামিমের নেতৃত্বে রাজ্য পুলিশের বিশেষ প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত একটি দল আজ রানিগঞ্জের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here