corona bihar

মহানগর ডেস্ক:  স্টেশনে ট্রেন ঢোকার অপেক্ষা। ঠিক যে মুহূর্তে ট্রেন স্টেশনে থামছে, পড়িমড়ি করে দৌড়তে শুরু করেছে যাত্রীরা। স্বাস্থ্যকর্মীদের চোখ এড়িয়ে যে করেই হোক স্টেশনের বাইরে বের হতে হবে। তাহলেই শান্তি। কেউ ঢাউস ব্যাগ নিয়ে দৌড়াচ্ছেন তো, কেউ কোলে বাচ্ছা। একবার যদি স্বাস্থ্যকর্মীরা কোনও রকমে ধরে ফেলে, তাহলেই করোনা টেস্ট। কোনও রকম কোনও যদি উপসর্গ থাকে তো কথাই নেই, সোজা পাঠানো হবে আইসোলেশন। তার থেকেই দৌড়ে স্টেশনের বাইরে বেরিয়ে যাওয়া ভালো।

দেশের পাশাপাশি বিহারেও করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। ইতিমধ্যে মুম্বই, পুনে, দিল্লির বহু পরিযায়ী শ্রমিক নিজের রাজ্যে ফিরতে শুরু করেছে। পাশাপাশি মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান, গুজরাট থেকেও পরিযায়ী শ্রমিক ফিরছেন। এরফলে বিহারের রেল, বাসস্টপে উপছে পড়া ভিড় দেখতে পাওয়া যায়। পাশাপাশি বিহারে করোনা পরিস্থিতির অবনতি হচ্ছে। তাই রাজ্য সরকার রেলস্টেশন ও বাস স্টপে ব়্যানডম করোনা পরীক্ষার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আর তার জেরেই ট্রেন থেকে নেমেছে ঊর্ধ্বশ্বাসে দৌড়তে শুরু করেছেন যাত্রীরা।

সাধারণ মানুষের করোনা পরীক্ষায় এত অনীহা, তাতে কপালে চিন্তার ভাঁজ পড়ছে স্বাস্থ্য আধিকারিকের। একদিকে মানুষ সচেতন নন, অন্যদিকে করোনা পরীক্ষায় অনীহা, এর ফলে রাজ্যে করোনা পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ আকার ধারণ করতে পারে বলেই বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন। করোনা নিয়ে ল্যানসেটের রিপোর্ট ইতিমধ্যে আতঙ্ক ছড়াতে শুরু করেছে। ল্যানসেটের রিপোর্টে জানানো হয়েছে, জুন মাসে করোনা পরিস্থিতির এতটা অবনতি হবে, যখন দৈনিক দুই হাজারের বেশি মানুষের করোনায় মৃত্যু হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here