Parul

মহানগর ডেস্ক: গতকাল থেকে দেশের রাজনীতি হয়ে রয়েছে উত্তাল। পেগাসাস, দেশের নেতা-মন্ত্রী, সরকারি আমলা, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী থেকে ১৮০ জন সাংবাদিকের নম্বর হ্যাক করা হয়েছে। আর তারপরেই মোদী সরকারের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে বিরোধী দলগুলি। এবার শুধু ভারত নয়, পেগাসাস এর আতঙ্ক দেখা দিয়েছে পাকিস্তানেও।

ads

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের নম্বর হ্যাক হয়েছে বলে জানা গেছে। পাকিস্তানের তথ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, পরীক্ষা করে দেখা যাচ্ছে ইমরান খানের ফোন নম্বরও হ্যাক হয়েছে। এবার খতিয়ে দেখা হচ্ছে পেগাসাস কোনও ভাবে ফোন হ্যাক করেছিল কিনা।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে, ইজরায়েলের নজরে বেশকিছু নম্বর। তার মধ্যে একটি নম্বর ইমরান খানের। পাকিস্তানের তথ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, পাকিস্তান সরকার ইতিমধ্যে এই বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছে। যদি জানা যায় সত্যিই হ্যাক হয়েছিল পাকিস্তান প্রধানমন্ত্রী ফোন, তাহলে এই ইস্যুটি তারা উপযুক্ত জায়গা উত্থাপন করবেন।

গতকালই এই বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলেন পাকিস্তানের তথ্যমন্ত্রী। তিনি জানিয়েছিলেন যে, ভারত সরকারের ওই সফটওয়্যার ব্যবহার করে যেভাবে সাংবাদিক, রাজনৈতিক প্রতিপক্ষের ওপর নজরদারি চালিয়েছেন বলে জানা গেছে তাতে আমরা অত্যন্ত উদ্বিগ্ন। এমনকি মোদি সরকারের অর্থনৈতিক নীতির নিন্দা করেছে পাকিস্তানের তথ্যমন্ত্রী। মঙ্গলবার প্যারিসে অভিযোগ উঠেছে কয়েকজন সাংবাদিকের ফোনে নজরদারি চালানোর।

ইতিমধ্যেই দেশের রাজনীতি নিয়ে বহু সংবাদমাধ্যমেই বলা হচ্ছে যে, পেগাসাস এর নামে ম্যালওয়ার ব্যবহার করে কেন্দ্রীয় সরকার বিরোধীদের ফোনে আঁড়ি পাতছে। তার মধ্যে রয়েছে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী, তৃণমূল কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, প্রশান্ত কিশোর সহ বিরোধী নেতারা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here