kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: রাজ্যে চলতে থাকা ভোট-পরবর্তী হিংসা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদি। গতকাল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফ থেকে রাজ্য প্রশাসনের কাছে রিপোর্ট চাওয়া হয়েছে। আজ কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফ থেকে রাজ্যে এসেছে চার সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল। ওই দলটি ঘুরে দেখবে হিংসা কবলিত বিভিন্ন এলাকা। তারপর তারা ফিরে গিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকে একটি রিপোর্ট জমা দেবে।

​ভোটের ফলপ্রকাশের পর থেকে এই হিংসার ঘটনায় বেশ কয়েকজন মারা গিয়েছেন। তাদের মধ্যে বিজেপি কর্মী যেমন আছেন, আছেন তৃণমূল কর্মীও। ভোট-পরবর্তী হিংসায় শুধু বিরোধীরা নয়, প্রাণ হারিয়েছেন তৃণমূল কর্মীরাও। কিন্তু বিজেপি বলতে চাইছে একতরফা তাদের কর্মীদের ওপর হামলা হচ্ছে। আসলে মানুষ যে তাদের প্রত্যাখ্যান করেছে সে কথা বলতে পারছে না বিজেপি। তাই কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল পাঠিয়েছেন মোদি। এইভাবে কটাক্ষ করলেন তৃণমূল নেতা ফিরহাদ হাকিম।

​ফিরহাদ হাকিম বলেছেন, রাজ্যে হিংসায় একজনও মারা যান তা আমরা চাই না। কিন্তু, বদলার মনোভাব নিয়ে এসব করছে বিজেপি। তৃণমূল কর্মীদের ওপর হামলা হচ্ছে। উল্টে তাদের তরফে বলা হচ্ছে একতরফা বিজেপির ওপর হামলা হচ্ছে। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক টিম পাঠিয়ে দেখানোর চেষ্টা করেছে যে, বাংলায় সন্ত্রাস হচ্ছে। মুখ্যমন্ত্রী কঠোর হতে বলেছেন হিংসা মোকাবিলায়। তিনি বলেছেন যে হিংসা হচ্ছে তাও যেন না হয়। বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব অপদার্থ। বাংলায় তারা ব্যর্থ হয়ে ফিরে গিয়েছেন। এখন সেই অপদার্থতা ঢাকার জন্য বাংলায় কী হচ্ছে, সেটাই দেখাতে চাইছে বিজেপি।

উল্লেখ্য, রাজ্যে ভোট-পরবর্তী হিংসার পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে দিল্লি থেকে এসেছে চার সদস্যের একটি কেন্দ্রীয় দল। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে পাঠানো ওই চার সদস্যের প্রতিনিধি দলে একজন অতিরিক্ত সচিব আছেন নেতৃত্বে। কেন্দ্রীয় বাহিনীকে সঙ্গে নিয়ে ওই দলটি রাজ্যে বিভিন্ন প্রান্তে ঘুরে ঘুরে দেখবেন সেখানকার পরিস্থিতি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here