ডেস্ক: কর্ণাটক বিধানসভা নির্বাচন শেষ হওয়ার পরই ঝুলি থেকে বেরিয়েছিল বেড়াল। একবার ভোট হয়ে গেলে তখন কিসের ‘বিকাশ’, কিসেরই বা ‘আচ্ছে দিন’। তাই চলতি মাসের ১২ তারিখের পর থেকে মধ্যবিত্তর অন্যতম দুই জ্বালানী পেট্রোল-ডিজেলের দাম বাড়তে শুরু করে। টানা ১০ দিন লাফিয়ে লাফিয়ে তা বাড়তে বাড়তে এবার নাভিশ্বাস তুলে দিয়েছে সাধারণ মানুষের পকেটে। বুধবারও অব্যাহত পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধি।

বুধবার কলকাতায় ডিজেলের দাম ২৬ পয়সা বেড়ে তা দাঁড়িয়েছে ৭০ টাকা ৮৯ পয়সায়। পেট্রোল প্রায় ৮০ টাকা ছুঁয়ে ফেলেছে বলাই চলে। মহানগরে আজ ১৭ পয়সা কম ৮০ টাকায় বিকোচ্ছে পেট্রোল। বাণিজ্যনগরী মুম্বইের অবস্থা যেন আরও খারাপ। সেখানে পেট্রোলের দাম ১ পয়সা কম ৮৫ টাকা। অন্যদিকে, রাজধানী নয়াদিল্লিতে আজ পেট্রোলের দাম বেড়ে হয়েছে প্রতি লিটারে ৭৭ টাকা ১৭ পয়সা। এছাড়াও দেশের অন্যান্য শহরে পেট্রোলের দাম ঘুরছে ৮০ টাকার আশেপাশে।

বিগত ১০ দিনে এই ব্যাপক মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে ১৮ জুন ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে পেট্রোল পাম্প ডিলার্স অ্যাসোসিয়েশন। ড্যামেজে যে ভাবেই কন্ট্রোল করতে গতকালই অ্যাসোসিয়েশনের মালিকদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী। কিন্তু তাতেও সুরাহা হয় নি। আজ কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠকে পেট্রোল ও ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে আলোচনা হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। তবে আগামী কয়েক দিনেও যে দুই নিত্য প্রয়োজনীয় পেট্রোপণ্যের দাম বাড়বে তা এখনই বলে দেওয়া যাচ্ছে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here