ডেস্ক: সম্প্রতি কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী জানিয়েছিলেন পেট্রোল ডিজেলের দাম নিয়ে মস্করা করছে সরকার। যদিও তার পর থেকে গত দুদিনে সামান্য নেমেছে পেট্রোল ডিজেলের দাম। তবে তেলের দাম কমলেও এক ধাক্কায় অনেকখানি বাড়িয়ে দেওয়া হল রান্নার গ্যাসের দাম। প্রশ্ন উঠছে, মধ্যবিত্তকে নিঃস্ব করার জন্য কি উঠে পড়ে লেগেছে কেন্দ্রীয় সরকার?

শুক্রবার ভর্তুকিযুক্ত রান্নার গ্যাসের দাম বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে ২ টাকা ৩২ পয়সা। অর্থাৎ বর্তমান রান্নার গ্যাসের দাম এখন ৪৯৪ টাকা ৩৩ পয়সা। অন্যদিকে, ভর্তুকিহীন রান্নার গ্যাসের দাম বাড়ানো হয়েছে প্রায় ৫০ টাকা। অর্থাৎ ভর্তুকিহীন রান্নার গ্যাসের দাম এখন বেড়ে হয়েছে ৬৭৪ টাকা। শুধু এই দুটি ক্ষেত্রে নয়, বেড়েছে বানিজ্যিক ক্ষেত্রে ব্যবহৃত গ্যাসের দামও। ৭৯ টাকা বেড়ে বানিজ্যিক ক্ষেত্রে ব্যবহৃত গ্যাসের দাম করা হয়েছে ১২৯১ টাকা। প্রশ্ন উঠছে, গত ১৬ দিন ধরে চড়চড়িয়ে তেলের দাম বাড়ায় তা জনগণের মধ্যে এক বিরুপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করছে। সেটাকে সামাল দিতেই কি তেলের দাম কয়েক পয়সা কমিয়ে রান্নার গ্যাসের উপর তা চাপিয়ে দেওয়া?

এদিকে, একটানা ১৬ দিন তেলের দাম বৃদ্ধির পর শুক্রবার ফের কিছুটা নেমেছে পেট্রোল ডিজেলের দাম। বর্তমান বাজার দর অনুযায়ী পেট্রোলের দাম কমেছে ৬ পয়সা ও ৫ পয়সা কমানো হয়েছে ডিজেলের দাম। শুক্রবার ৬ পয়সা কমে কলকাতার বাজারে পেট্রোলের দাম ৮০তাকা ৯২ পয়সা। দিল্লিতে ৭৮ টাকা ২৯ পয়সা, মুম্বইতে ৮৬ টাকা ১ পয়সা এবং চেন্নাইতে ৮১ টাকা ২৮ পয়সা। অন্যদিকে ডিজেলের দাম কলকাতা, দিল্লি, মুম্বই ও চেন্নাইতে যথাক্রমে ৭১ টাকা ৭৫ পয়সা, ৬৯ টাকা ২ পয়সা, ৭৩ টাকা ৬৭ পয়সা এবং ৭৩ টাকা ৬ পয়সা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here