ডেস্ক: ফের হাত পড়ল সাধারণ মানুষের কপালে। আরও একবার প্রভিডেন্ট ফান্ডের সুদের গেল কমে। অর্থমন্ত্রক দ্বারা নতুন নির্দেশিকা জারি করার ফলে, ২০১৭-২০১৮ সালে সুদের হার কমে দাঁড়াল ৮.৫৫ শতাংশে। ২০১৫-১৬ আর্থিক বছরে সুদের হার ছিল ৮.৮০শতাংশ।

যদিও এই সুদের হার কমানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল ২০১৮ সালের ২১শে ফেব্রুয়ারির বৈঠকে। কর্ণাটকের ভোটপর্ব মিটতেই ইপিএফ-র এই চূড়ান্ত ঘোষণা সামনে এল। কর্ণাটকের বিধানসভা ভোট শেষ হওয়ার অপেক্ষায় ছিল কেন্দ্রীয় সরকার। ভোট পর্ব মিটতেই ঝুলি থেকে বেরিয়ে পড়ল বেড়াল।

কেন্দ্রীয় সরকারের এই ঘোষণা যে সাধারণ মানুষকে আরও বিপদে ফেলল তা বলাই বাহুল্য। শুক্রবার কেন্দ্র দ্বারা এই ঘোষণায় দেশজুড়ে প্রায় ৫ কোটি মানুষের হয়রানি সৃষ্টি হয়েছে । ফিরে দেখলে লক্ষ্য করা যায় ২০১২-১৩ ও ২০১৪-১৫ সালে সুদের হার বর্তমান সময়ের থেকে অনেক বেশি ছিল। ২০১২-১৩ সালে সাধারণ মানুষের জন্য সুদের হার ছিল ৮.৫ শতাংশ।

গত ৬ বছরে ওই সময়ই সুদের হার ছিল সব থেকে বেশি। গত ৫ বছরে এই পরিমাণ হার কমেনি সুদের। প্রভিডেন্ট ফান্ডের ভরসায় দিন কাটাতে থাকা বহু মানুষ আর মধ্যবিত্তদের জন্য কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্ত নেতিবাচক ফল বয়ে আনতে পারে কেন্দ্রের জন্য।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here