Home Featured ১৫ বছরের নাবালকের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক ১৩ বছরের নাবালিকার! প্রসবের পর বেপাত্তা অভিযুক্ত

১৫ বছরের নাবালকের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক ১৩ বছরের নাবালিকার! প্রসবের পর বেপাত্তা অভিযুক্ত

0
১৫ বছরের নাবালকের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক ১৩ বছরের নাবালিকার! প্রসবের পর বেপাত্তা অভিযুক্ত
Parul

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: অভিভাবকদের উদাসীনতায় নাবালক-নাবালিকাদের অবাধ ইন্টারনেটযুক্ত মোবাইলের অপব্যবহারের চরম সামাজিক অবক্ষয় নিদর্শন। নদিয়ার রানাঘাটে যে ঘটনা ঘটেছে, তাতে আতঙ্কিত সমাজবিজ্ঞানীরা। সমাজের জন্য অশনিসঙ্কেত বয়ে নিয়ে আসা ঘটনাটি ঘটেছে রানাঘাটের ধানতলা থানার অন্তর্গত কুশবেড়িয়া গ্রামে। ১৫বছরের নাবালকের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক হয় ১৩ বছরের নাবালিকার! জানাজানি হতেই পরিবারের পক্ষ থেকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দেওয়া। এরপর সন্তান প্রসব করে ওই নাবালিকা। তারপর থেকে পলাতক নাবালক কিশোর।

নাবালিকার মায়ের দাবি, সপ্তম শ্রেণিতে পাঠরত তার মেয়ে ৯ মাস আগে অপহৃত হয় স্কুলের যাওয়ার পথে। লজ্জায় ও ভয়ে মেয়ে এতদিন কিছুই বলেনি। মোটাসোটা চেহারা হওয়ার কারণে তিনি প্রথমে কিছু বুঝতে পারেননি বলে জানান। তবে প্রথমবার ঋতুমতী হওয়ার পর পরবর্তীতে না হওয়ার কারণে মেয়েকে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাওয়া হয়। কয়েকটি পরীক্ষার পর জানা যায় মেয়ে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছে।

এরপর মায়ের কাছে ওই নাবালিকা জানায়,  এলাকার নবম শ্রেণিতে পাঠরত ১৫ বছরের এক কিশোর তাকে শারীরিক সম্পর্ক করতে বাধ্য করে। ঘটনাটি গ্রামে জানাজানি হতেই ওই নাবালকের পরিবার নাবালিকার পরিবারকে বিয়ের জন্য চাপ দেয়। ওই নাবালিকা সন্তান প্রসব করার পর ক্রমশই তার বাড়িতে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম ও স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা যাতায়াত বাড়ে। এরপর ওই কিশোর বাড়ি থেকে বেপাত্তা হয়ে যায়। অভিভাবকদের সচেতনতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন এলাকাবাসী। বলা হচ্ছে, এই বয়সে তাদের হাতে ইন্টারনেটযুক্ত মোবাইল থাকার পরিণতি এই ঘটনা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here