news bengali

মহানগর ওয়েবডেস্ক: পায়ে এক রিংয়ের মধ্যে লেখা অদ্ভুত কোড নম্বর। আকাশ পথে সীমান্ত পেরিয়ে এসে জম্মু কাশ্মীরের কাঠুয়াতে এক বাড়ির ছাদে বসেছিল পায়রাটি। সন্দেহভাজন এই পায়রাকে ঘিরেই শুরু হয় বিতর্ক। জল্পনা ছড়ায় পুরানো প্রথাকে হাতিয়ার করে উপত্যকায় সন্ত্রাস ছড়ানোর চেষ্টা চালাচ্ছে পাকিস্তান। সংবাদমাধ্যমের ছাপা হয় সন্দেহভাজন এই পায়রার কীর্তিকলাপ। কোডের রহস্য উদ্ধারে লেগে পড়ে গোয়েন্দা বিভাগ। পায়রাকে ঘিরে যখন উপত্যকায় নিরাপত্তা বাহিনীর মধ্যে চুড়ান্ত তৎপরতা শুরু হয়েছে, ঠিক তখন মোদীকে উদ্দেশ্য করে পাকিস্তানের এক সাধারণ নাগরিক আর্জি জানায়, এ পায়রা তার। তবে সে কোনো জঙ্গি নয়। তার আদরের পোষা পায়রা। ছেড়ে দেওয়া হোক তাকে। অবশেষে ওই পাক নাগরিকের আর্জি মেনে পায়রাটিকে ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল ভারত।

এদিন জম্বু কাশ্মীর পুলিশের তরফে সংবাদমাধ্যমকে জানানো হয়, কাঠুয়া থেকে যে সন্দেহভাজন পায়রাটিকে উদ্ধার করা হয়েছিল, তার কাছে সন্দেহভাজন কিছু মেলেনি। তার পায়ে যে রিং ছিল সেটিও নিতান্ত সাধারণ রিং তাতে লেখা  কোডের কোনও সন্দেহভাজন অর্থ নেই। সেটি একটি মোবাইল নাম্বার। সেহেতু নিরাপত্তা বাহিনীর তরফে বৃহস্পতিবারই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে পায়রাটিকে ছেড়ে দেওয়া হবে। ঠিক যে স্থানে তাকে খুঁজে পাওয়া গিয়েছিল সেখানেই। জম্মু-কাশ্মীরে পুলিশ কর্তা শৈলেন্দ্র আরো জানান, গত রবিবার সন্ধ্যে সাতটা নাগাদ সীমান্ত সংলগ্ন এক বাড়ির ছাদে ধরা হয়েছিল পায়রাটিকে। এর আগেও জঙ্গিদের তরফে পায়রাকে ব্যবহার করে তথ্য আদান-প্রদানের মতো ঘটনা ঘটেছিল বলে বিষয়টিতে সন্দেহ জাগে নিরাপত্তাবাহিনীর তদন্ত শুরু হয়। যদিও আমরা জানতে পেরেছি পায়রাটি নিরপরাধ সুতরাং তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

যদিও পায়রাটিকে কেন্দ্র করে কোন কিছু হয়নি। সংবাদ মাধ্যমে সে খবর ছড়িয়ে পড়ার পর সীমান্তের ওপারে পাকিস্তানের বগগা সকরগর গ্রামের হাবীবুল্লা নামে এক ব্যক্তি দাবি করেন পায়রাটি তার পোষা। সোশ্যাল মিডিয়ায় এক ভিডিও বার্তায় হাবীবুল্লা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কাছে অনুরোধ জানিয়ে বলেন, মোদীজি ও জঙ্গি নয়, গুপ্তচরও নয়, আমার পরিবারের সদস্য। ওকে আমি খুব ভালোবাসি। দয়া করে ওকে ফিরিয়ে দিন। সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি আরো জানান, ঈদ উপলক্ষে বারোটি পোষা পায়রা উড়িয়ে ছিলেন ওই ব্যক্তি। যার মধ্য থেকে ১১ টি পায়রা ফিরে আসে। একটি আসেনি। এর পরই সংবাদমাধ্যম থেকে তিনি জানতে পারেন ভারতীয় সেনার হাতে বন্দি হয়েছে পায়রাটি। নিজের পায়রা ফেরত চেয়ে অভিনন্দন বর্তমানের প্রসঙ্গও তুলে আনেন তিনি। এদিন অবশ্য ওই ব্যক্তির পোষা পায়রা ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে জম্মু কাশ্মীর পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here