Parul

মহানগর ডেস্ক: পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং ও কংগ্রেসের অন্যতম নেতা নভজোত সিং সিধুর মধ্যে কার বিবাদ মিটিয়ে তাদের মধ্যে বিবাদ ঘোচাতে এবার আসরে নামলেন স্বয়ং ভোট কৌশলী প্রশান্ত কিশোর।
আজ এই নিয়ে বৈঠকে কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীর বাসভবনে পৌঁছন প্রশান্ত। সূত্র মারফত পাওয়া খবর অনুযায়ী তাঁর সাথে এই বৈঠকে থাকবেন কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াঙ্কা ভাদ্রাও।এই বৈঠক মূলত পাঞ্জাব কংগ্রেসের অভ্যন্তরে ঘটে চলা রাজনৈতিক সংকটের প্রেক্ষাপটেই হতে চলেছে বলে খবর পাওয়া যাচ্ছে।

ads

নির্বাচনের প্রাক্কালে পাঞ্জাবের কংগ্রেসী মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর ও প্রাক্তন ক্রিকেটার তথা অন্যতম প্রধান কংগ্রেস নেতা নভজোত সিং সিধুর মধ্যে ক্ষমতার টানাপোড়েন ও দ্বন্দ্বে বেশ অস্বস্তিতে পাঞ্জাব কংগ্রেস। এই সুযোগে আসরে নেমে পড়েছে পাঞ্জাবে কংগ্রেসের অন্যতম মুখ্য প্রতিদ্বন্দ্বী কেজরিওয়ালের আম আদমি পার্টি। তাই নির্বাচনের আগে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব এই সমস্যা মিটিয়ে পাঞ্জাবের স্থায়ী সমাধান করতে উদগ্রীব গান্ধী পরিবার। সারা দেশেই বর্তমানে নিজেদের জমি হারাতে থাকা কংগ্রেসের কাছে পাঞ্জাব অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি রাজ্য। গোষ্ঠীদ্বন্দের মতো কারণে তারা তা একদমই হারাতে চায় না। তাই এক্ষেত্রে প্রশান্ত কিশোরের পরামর্শ ও সাহায্য চাইছে কংগ্রেস।
সেই কারণেই উত্তরপ্রদেশে নিজের গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক ছেড়ে এই বৈঠকে যোগ দেবেন প্রিয়াঙ্কা ভাদ্রা।

প্রসঙ্গত ২০১৭ সালে পাঞ্জাব বিধানসভা নির্বাচনে ক্যাপ্টেনের জয়ের অন্যতম প্রধান সেনাপতি ছিলেন ভোটকুশলী প্রশান্ত কিশোর ও তার সংস্থা আইপ্যাক। এছাড়াও তৎকালীন বিজেপি নেতা সিধুর কংগ্রেসে যোগদানের পেছনেও পিকের প্রত্যক্ষ হাত ছিল বলে মনে করা হয়। তবে সেই জয়ের কিছু পরেই সিধু ও মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দরের মধ্যে টানাপোড়েন শুরু হয়। এমনকি এক সময় ক্যাপ্টেনের বিরুদ্ধে তাঁকে সাইডলাইন করে দেওয়া হচ্ছে এই অভিযোগ তুলে অমরিন্দর ক্যাবিনেট থেকে ইস্তফাও দেন।

২০২২ সালে আসন্ন পাঞ্জাব নির্বাচনেও পিকেই কংগ্রেসের প্রচার সামলাবেন বলে মনে করা হচ্ছে। আর সিধু ও অমরিন্দরের মধ্যে সমঝোতার প্রচেষ্টার মাধ্যমেই সেই কাজ শুরু করলেন পিকে, এমনটাই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। ২০২১ সালে মমতার জয়ের সারথী হওয়ার ওর অপ্রতিরোধ্য পিকে পাঞ্জাবে কেমন ‘খেলা’ দেখান তা দেখার প্রতীক্ষায় রাজনৈতিক মহল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here