kolkata news

 

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ভয়ঙ্কর বিমান দুর্ঘটনা কেরলের কোঝিকোড়ে। অবতরণের সময় রানওয়ে থেকে পিছলে গিয়ে খাদে পড়ে বিমানটি ভেঙে কয়েক টুকরো হয়ে যায়। এই ঘটনায় মারা যান পাইলট, সহ পাইলট-সহ আরও দু’জন। শুক্রবার রাত আটটা নাগাদ দুর্ঘটনাটি ঘটেছে কেরলের কোঝিকোড়ের কারুপুর বিমানবন্দরে। ১০ জনের মৃত্যুর পাশাপাশি গুরুতর আহত হয়েছেন অন্তত ৪০ জনের বেশি যাত্রী। বাকিরা সবাই কমবেশি আহত হয়েছেন। আহতদের যুদ্ধকালীন তৎপরতায় উদ্ধার করে কাছাকাছি বিভিন্ন হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে ভর্তি করা হয়।

জানা গিয়েছে, এয়ার ইন্ডিয়ার এক্স 1344 বিমানটি ১৮০ জন যাত্রী নিয়ে দুবাই থেকে কোঝিকোড়ে আসছিল। যাত্রীদের মধ্যে ছিল বেশ কয়েকজন সদ্যোজাত ও শিশু। কারুপুর বিমানবন্দরে যখন বিমানটি আসে, সেই সময় তুমুল বৃষ্টি হচ্ছিল। বৃষ্টির কারণে পিচ্ছিল হয়ে পড়ে টেবিলটপ এই রানওয়েটি। বিমানটি অবতরণের সময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন পাইলট। রানওয়ে থেকে পিছলে গিয়ে খাদে পড়ে তিন টুকরো হয়ে গিয়ে বিমানটি ভেঙে যায়। বিমানের সামনের অংশটি সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। তবে সৌভাগ্যের, বিমানটি এত ক্ষতিগ্রস্ত হলেও আগুন লাগেনি। তাই হতাহতের সংখ্যা বাড়েনি।

দুর্ঘটনার পর প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদী ফোন করে ঘটনা সম্পর্কে জানতে চান কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়নের কাছ থেকে। দ্রুত উদ্ধারকাজের জন্য এয়ারপোর্টে যাচ্ছে এনডিআরএফ টিম। আপাতত সেখানেই দমকল এবং এয়ারপোর্ট-এর নিজস্ব নিরাপত্তা বিভাগ যুদ্ধকালীন তৎপরতায় উদ্ধার কাজ চালাচ্ছে। প্রায় ২৫টি অ্যাম্বুল্যান্স আহত যাত্রীদের উদ্ধার করে বিভিন্ন হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার কাজ করছে। উল্লেখ্য, ২০১০ সালে ঠিক এমনই একটি দুর্ঘটনা ঘটেছিল ম্যাঙ্গালোরে। সেবারও রানওয়ে থেকে পিছলে গিয়েছিল একটি যাত্রিবাহী বিমান। এদিন আবার সেই ঘটনার পুনরাবৃত্তি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here