শোয়ারড ড্রিমস ব্রাইট ফিউচার্স- হাউস্টনে মোদী-ট্রাম্পের কণ্ঠে বন্ধুতার প্রতিধ্বনি

0
177
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: উপচে পড়ছে স্টেডিয়াম। মঞ্চে বিশ্বের দুই বৃহৎ গণতন্ত্রের রাষ্ট্রনেতা। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। শেয়ারড ড্রিমস ব্রাইট ফিউচার্স- এই মন্ত্রে গাঁথা হল দুই দেশের বন্ধুতার সাঁকো। একই সুর প্রতিধ্বনিত হল ট্রাম্প ও মোদীর কণ্ঠে। গুড মর্নিং আমেরিকা-এভাবেই স্টেভিয়ামের উপচে পড়া ভিড়কে সম্বোধন করলেন মোদী। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ট্রাম্পকে অভ্য়র্থণা জানিয়ে বলেন, এক বিশেষ ব্য়ক্তিত্ব আজ আমাদের সঙ্গে আছেন। এটা আমার সৌভাগ্য় এমন অনুষ্ঠানে ট্রাম্পকে স্বাগত জানাতে পেরেছি। সামনেই আমেরিকায় ভোট। তাই ট্রাম্পের হয়ে সওয়াল করে মোদী বললেন, আপকি বার ট্রাম্প সরকার। একইসঙ্গে তিনি আরও বলেন ইসলামিক সন্ত্রাসবাদ থেকে অসহায় নাগরিকদের রক্ষা করতে আমার সরকার প্রতিশ্রতিবদ্ধ। তিনি আরও বলেন, আমেরিকায় অবৈধ অনুপ্রবেশ রুখতে সরব হয়েছেন ট্রাম্প।

ট্রাম্পকে প্রশংসায় ভরিয়ে দেন মোদী। বক্তৃতা শেষে ট্রাম্পের সঙ্গে করমর্দন করে মঞ্চ থেকে নেমে যান তিনি। এরপর ট্রাম্প বক্তৃতা দিতে গিয়ে একইভাবে মোদীর প্রতি তাঁর আবেগ প্রকাশ করেন। তাঁর কথায়, হ্যালো হিউস্টন, আমি এখানে আসতে পেরে ভীষণ আনন্দিত। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী খুব ভালো কাজ করছেন ভারতীয়দের জন্য।

এরপরে তাঁর কথায়, কিছুদিন আগেই ভারতের ৬০ কোটি মানুষ ভোটে অংশগ্রহণ করেছে। ভোট দিয়ে মোদীকে দ্বিতীয় বার প্রধানমন্ত্রী বানিয়েছেন, তার জন্য মোদীকে অভিনন্দন। তাঁর কথায়, আমাদের দেশে ৪০ লক্ষ ভারতীয় রয়েছে, তাঁদের আলাদা করে শুভেচ্ছা ও ধন্যবাদ জানাই। যখনই দেশে কোনও সঙ্কট তৈরি হয়েছে, হাউস্টন দৃঢ়ভাবে পাশে দাঁড়িয়েছে। আমরা সব সময়, সব কিছুতে আপনার সঙ্গে থাকব। আমরা দু’জন মিলে কঠিন পরিশ্রম করছি একসঙ্গে কাজ করার জন্য। জম্মু-কাশ্মীর নিয়ে পাকিস্তানের সঙ্গে টানাপড়েনের মধ্যেই এই অনুষ্ঠান কূটনৈতিক ভাবেও গুরুত্বপূর্ণ। প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের কথা মাথায় রেখে, প্রবাসী ভারতীয়দের ইতিবাচক বার্তা দিয়েই সভার সুর বেঁধে দিলেন ট্রাম্প।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here