pm modi on sarrcc meeting

মহানগর ওয়েবডেস্ক: করোনার বিরুদ্ধে একত্রিত লড়াই করতে সার্ক গোষ্ঠীভুক্ত দেশগুলির সঙ্গে এদিন ভিডিও কনফারেন্সে আলোচনা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এদিনের বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী বার্তা দেন, এহেন জরুরি অবস্থায় প্যানিক করে কোনও লাভ নেই। বরং কজোট হয়ে রুখতে হবে করোনা ভাইরাসকে। সবরকম পরিস্থিতির জন্য তৈরি থাকতে হবে সবাইকে। প্রধানমন্ত্রীকে আত্মবিশ্বাসী সুরে বলতে শোনা যায়, ‘আমাদের যৌথ প্রচেষ্টা ফলপ্রসূ হবে। প্রস্তুত থাকতে হবে, তবে আতঙ্কিত নয়। এটাই আমাদের মন্ত্র হওয়া উচিত। আমাদের গা ছাড়া মনোভাব ত্যাগ করতে হবে।’

করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় সার্কভুক্ত দেশগুলিকে একসঙ্গে নিয়ে ভিডিয়ো কনফারেন্স করার সিদ্ধান্ত নেন মোদী। সেই উদ্যোগে সাড়া দিয়ে রবিবার বিকেল পাঁচটায় ভিডিয়ো কনফারেন্সে অংশ নেয় ভারত, পাকিস্তান, আফগানিস্তান, বাংলাদেশ, ভুটান, মলদ্বীপ, নেপাল ও শ্রীলঙ্কা। সার্কভুক্ত দেশগুলিতে এখনও পর্যন্ত ১৫০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। ভারত সহ বাকি ছটি দেশের নাগরিকদেরই তিনি উপদেশ দেন সতর্ক থাকতে। নমোর কথায়, ‘এই সমস্যাকে হালকাভাবে দেখলে চলবে না, আবার ভয়ে সিঁটিয়ে গেলেও চলবে না। অত্যাধুনিক ব্যবস্থা-সহ সবরকম ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।’

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর এই প্রস্তাবে সহমত প্রকাশ করেন নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলি, ভুটানের প্রধানমন্ত্রী লোটে শেরিং, শ্রীলঙ্কার রাষ্ট্রপতি গোতাবায়া রাজাপক্ষে, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, মলদ্বীপের রাষ্ট্রপতি ইব্রাহিম মহম্মদ সোলিহ ও আফগান সরকার। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে বাঁচতে দেশের বেশিরভাগ স্কুল কলেজ বন্ধ রাখা হয়েছে। কর্মীদের বাড়ি থেকে কাজ করতে বলা হয়েছে অফিসগুলির তরফে, সিনেমা হল বন্ধ রাখার পাশাপাশি বিভিন্ন উৎসব এবং সমাবর্তন স্থগিত রাখা হয়েছে। তা সত্ত্বেও ১০৮ জনের দেহে ছড়িয়ে পড়েছে এই মারণ ভাইরাস। মৃত্যু হয়েছে দু’জনের। কোথায়, কবে, কীভাবে এর শেষ, এই নিয়েই চলছে নিরন্তর গবেষণা। তবে উত্তর এখনও অধরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here