kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে উত্তরপূর্ব থেকে প্রতিবাদ শুরু হয়েছিল, এখন তা দেশের প্রায় সর্বত্র। পশ্চিমবঙ্গ থেকে শুরু করে দিল্লি, বিহার হোক কিংবা মহারাষ্ট্র, সব জায়গাতেই বিক্ষিপ্ত অশান্তি বর্তমান। টায়ার জ্বালিয়ে প্রতিবাদ থেকে রেললাইন ভাঙা, ট্রেনে হামলা থেকে বাস জ্বালানো, সবই চলছে দেশজুড়ে। রাস্তায় বেরিয়ে নাকাল হতে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরা শান্তিপূর্ণ আন্দোলনের ডাক দিলেও মানুষের উত্তেজনা কমানো যাচ্ছে না। সিএএ নিয়ে প্রতিবাদের বিষয় এবার মুখ খুললেন খোদ প্রধানমন্ত্রী। বললেন, নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে এই ধরনের হিংসাত্মক প্রতিবাদ খুবই দুঃখজনক।

এদিন সিএএ প্রসঙ্গে টুইট করে নরেন্দ্র মোদী বলেন,

‘আমি আমার দেশের সকল নাগরিককে আশ্বস্ত করতে চাই যে, সিএএ ভারতবর্ষের কোনও নাগরিকের ওপর কোনও প্রভাব ফেলবে না তার ধর্ম যাই হোক না কেন। কোনও ভারতীয়র এই আইন নিয়ে কোনও চিন্তা করার কারণ নেই। এই আইন তাদেরই জন্য যারা বহু দশক ধরে অত্যাচার সহ্য করছেন এবং যাদের ভারত ছাড়া আর অন্য কোথাও যাওয়ার নেই। আমি শান্তির কামনা করছি।’

পাশাপাশি তিনি আরও জানান, ‘গণতন্ত্রের অন্যতম স্তম্ভ হচ্ছে তর্ক, আলোচনা। কিন্তু তার নামে এইভাবে জনগণের সম্পত্তি নষ্ট করে প্রতিবাদ দেখানোর কোনও যথার্থতা নেই। আমাদের সাধারণ জীবনযাপনে এর ব্যাপক মাত্রায় প্রভাব পড়ে।’


টুইটের পাশাপাশি ফেসবুক পোস্ট করেও তিনি দেশের মানুষকে আর্জি জানিয়ে বলেন, ‘আমাদের এখন উচিত সকলে মিলে একসঙ্গে কাজ করা। দেশের সার্বিক উন্নতির জন্য চিন্তা করা, মূলত গরীবদের জন্য। যারা স্বার্থপরের মতো এই উত্তেজনা সৃষ্টি করে নিজেদের সুবিধা ভোগ করতে চাইছে আমরা তাদের এই স্বার্থ পূরণ করতে দিতে পারি না।’ যদিও এতকিছু বলার পরেও দিল্লির জামিয়া মিলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে পুলিশি তাণ্ডব নিয়ে একটা কথাও বলেননি তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here