ডেস্ক: লোকসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ফের মাস্টারস্ট্রোক দিতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বিজেপির অন্দরে কান পাতলেই নাকি শোনা যাচ্ছে, নিজের কেন্দ্র উত্তর প্রদেশের বারাণসীর পাশাপাশি ওড়িশার পুরী কেন্দ্র থেকে ভোটে লড়তে পারেন মোদী। এই জল্পনা শুরু হতেই খুব স্বাভাবিক প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে, তাহলে কী বারাণসী কেন্দ্রকে সেভ মনে করছেন না মোদী কিংবা তার দল বিজেপি? কারণ, গত ২০১৪ লোকসভা নির্বাচনে হিন্দি বলয়গুলিতে মোদী যে ম্যাজিক দেখিয়ে ছিলেন, ক্রমাগত তা ঝাপসা হয়ে যাচ্ছে। শেষ কয়েকটি লোকসভা ও বিধানসভা উপনির্বাচনে ভরাডুবি হয়েছে গেরুয়া শিবিরের।

বিজেপি অবশ্য মোদীর পুরীতে দাঁড়ানো নিয়ে এই তথ্য মানতে নারাজ। তাদের দাবি, হিন্দি বলয়ে মোদী ম্যাজিক ২০১৯ নির্বাচনেও অটুট থাকবে। এবার বিজেপি পূর্ব ভারতকে টার্গেট করেছে। আর পূর্ব ভারতে থাবা বসাতে হলে ওড়িশা ও পশ্চিমবঙ্গকে দখলে নিতে হবে। কারন, ২০১৪ সালে এই দুই রাজ্যে থেমে গেছিল মোদীর অশ্বমেধের ঘোড়া। দুই রাজ্যের দুই জনপ্রিয় মুখ্যমন্ত্রী নবীন পাট্টানায়ক এবং মমতা ব্যানার্জীর দুর্গে ফাটল তো দূরের কথা, আঁচড় পর্যন্ত কাটতে পারেনি মোদী ম্যাজিক।

বিহার থেকে অবশ্য ৪০টির মধ্যে ২২টি আসন পেয়েছিল বিজেপি। এবার নীতিশ কুমার সঙ্গে থাকায় সেই সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে মনে করছে বিজেপি। কিন্তু ওড়িশা আর পশ্চিমবঙ্গে দাঁত ফোটানো সহজ হবে না সেটা অমিত শাহরা ভালোই জানেন। আর পূর্ব ভারতে ভালো ফল করতে না পারলে বিজেপির পক্ষে সরকার ধরে রাখা বেশ কঠিন হবে। কারণ, হিন্দি বলয়ে রাজস্থান, মধ্য প্রদেশ, গুজরাত, মহারাষ্ট্র, উত্তরপ্রদেশে বিজেপির আসন যে কমছে, তা একপ্রকার নিশ্চিত। তাই পূর্ব ভারত থেকে ড্যামেজ কন্ট্রোলে নেমেছে গেরুয়া বাহিনী। সেক্ষেত্রে ওড়িশা ও পশ্চিমবঙ্গ খুব গুরুত্বপূর্ণ।

বাংলার মাটিতে মমতার যে জনপ্রিয়তা, তা খর্ব করার মতো বিজেপির নেতা নেই আঞ্চলিক স্তরে। তাই দিনের পর দিন মোদী-অমিত শাহকে দিল্লি থেকে ছুটে আসতে হচ্ছে। বাংলা থেকে আসন বাড়াতে একের পর এক রাজনৈতিক কর্মসূচি নিয়েছে বিজেপি। কিন্তু কতটা কি করা যাবে তা নিয়ে এখনও স্পষ্ট কিছু বুঝতে পারছে না মোদী-শাহরা। তাই কৌশলগত কারণে সম্ভবত পুরীকে বেছে নিতে পারে বিজেপি। সেখান থেকে দাঁড় করানো হতে পারে নরেন্দ্র মোদীকে।

কিন্তু পুরী কেন? রাজনৈতিক বিশ্লেষজ্ঞরা মনে করছেন (১) পুরী এমন একটি ধর্মীয় স্থান, যে জায়গার প্রতি ওড়িশা ও বাংলার মানুষের একটা আবেগ জড়িয়ে আছে। (২) ভারতবর্ষের ইতিহাসে উত্তর-পূর্ব ভারত থেকে কেউ নির্বাচনে জিতে প্রধানমন্ত্রী হতে পারেননি। পুরী থেকে যদি মোদী জিতে প্রধানমন্ত্রী হতে পারেন, তাহলে সেটা হবে সবচেয়ে বড় চমক। মনমোহন সিং অসম থেকে রাজ্যসভায় নির্বাচিত হয়ে প্রধানমন্ত্রী হলেও, তা ভোটে জিতে নয়। (৩) মোদীর মতো একটা মুখ যদি পুরী থেকে নির্বাচনে লড়াই করেন, তাহলে ওড়িশা-বাংলা সহ গোটা উত্তর-পূর্ব ভারতে বিজেপির প্রভাব বাড়তে বাধ্য।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here