ডেস্ক: আধার হোক বা ফেসবুক, তথ্য চুরির অভিযোগ সাড়া ফেলেছে দেশ তথা গোটা বিশ্বে। ফেসবুক অ্যানালেটিকা থেকে তথ্য চুরি করার অভিযোগে একে অপরের দিকে কাদা ছেটাচ্ছে কংগ্রেস ও বিজেপি। এরইমাঝে খবর, দেশের সাধারন মানুষের সমস্ত তথ্য নিজেদের আয়ত্বে আনতে রীতিমতো লম্বা হাত বাড়িয়েছিল মোদী সরকার। এমনই খবর উঠে এসেছে কোবরাপোস্টের স্টিং অপারেশনে। অভিযোগ, পেটিএমের থেকে তাদের সমস্ত গ্রাহকের তথ্য চেয়ে পাঠিয়েছিল প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর।

কোবরাপোস্টের ‘অপারেশন-১৩৬ টু’ নামের এক অপারেশনে পেটিএমের এক উচ্চপদস্থ আধিকারিক জানান, ‘কাশ্মীরে যখন পাথর ছোঁড়ার ঘটনা ব্যাপকভাবে বেড়েছিল ঠিক সেই সময় পেটিএমের গ্রাহকদের তথ্য জানতে চাওয়া হয় প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে। পেটিএমের সভাপতি অজয় শেখর শর্মাও সাংবাদিকদের জানান, ‘কাশ্মীরে পাথরবাজদের চিহ্নিত করার জন্যই প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে পেটিএম গ্রাহকদের তথ্য অন্য একটি রাজনৈতিক দলকে দেওয়ার দাবি জানানো হয়।’ একটি ভিডিওতে তিনি সাংবাদিকদের আরও জানান, ‘প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে যে ফোন আসে তাতে বলা হয়, কাশ্মীরের পাথরবাজরা হয়ত পেটিএম ব্যবহার করে, এই তথ্য থেকে হয়ত তাদের চিহ্নিত করা যাবে।’ তবে সরকারের সেই দাবি পেটিএম মেনে নিয়েছিল কিনা তা জানা যায়নি।

তবে পেটিএমের তরফ থেকে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, ‘কোবরাপোস্টের এই স্টিং অপরেশনের কোনও ভিত্তি নেই। একেবারেই মিথ্যা গোটা বিষয়টি। তাদের গ্রাহকদের ডেটা একশ শতাংশ সুরক্ষিত রয়েছে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here