তৃণমূল নেতা লালচাঁদ বাগ খুনের ঘটনায় গ্রেফতার বিজেপি নেতা বিশ্বজিৎ মালিক

0
62
kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, আরামবাগ: গত ২২শে জুলাই রাতে হুগলি জেলারে আরামবাগ মহকুমার গোঘাট থানার নকুন্ডায় নৃশংসভাবে পিটিয়ে হত‍্যা করা হয় স্থানীয় তৃণমূল নেতা লালচাঁদ বাগকে। সেই ঘটনার জেরে অভিযোগ উঠেছিল বিজেপি আশ্রিত দুস্কৃতীরাই তৃণমূল নেতাকে পিটিয়ে খুন করেছে। সেই ঘটনার তদন্তে নেমে পুলিশ ছয়জনকে গ্ৰেপ্তারও করে। যদিও স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব ও মৃতের পরিবারের তরফে অভিযোগ করা হয়েছিল স্থানীয় বিজেপি নেতা বিশ্বজিৎ মালিকের ইশারাতেই সেই খুনের ঘটনা ঘটেছে। তার জেরে উভয়পক্ষই বিশ্বজিতের গ্রেফতারির দাবি করেছিল। প্রায় এক মাস বাদে সেই দাবি মান্যতা পেল পুলিশের হাতে অভিযুক্ত গ্রেফতার হওয়ায়। লালচাঁদ বাগ খুনের ঘটনায় মূল অভিযুক্ত বিশ্বজিৎ মালিককে বৃহস্পতিবার গ্রেফতার করে পুলিশ।

জেলা প্রশাসন সুত্রে জানা গিয়েছে, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে বাঁকুড়া জেলার খাতড়ার গোপালগঞ্জ এলাকা থেকে গোঘাট থানার পুলিশ বিশ্বজিৎ মালিককে গ্রেফতার করে। শুক্রবার আরামবাগ মহকুমা আদালতে তাকে তোলা হলে অভিযুক্তকে বিচারক ৫ দিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন। উল্লেখ‍্য লালচাঁদ বাগ খুনের কয়েকদিন পরেই ওই ঘটনায় অভিযুক্ত অপর এক বিজেপি কর্মী কাশীনাথ ঘোষের মৃতদেহ উদ্ধার হয় গোঘাটের কোটা খাল থেকে। সেই সময় বিজেপির পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল তৃণমূল আশ্রিত দুস্কৃতীরাই ওই ঘটনা ঘটিয়েছে। তার জেরে বিজেপির তরফে থানায় লিখিত অভিযোগ করার পাশাপাশি এলাকায় রাজনৈতিক চাপানউতোর শুরু হয়। বিজেপি কর্মীরা একাধিকবার অভিযুক্তদেরকে ধরতে থানায় বিক্ষোভ দেখায়।

অন্য দিকে লালচাঁদবাগ খুনের ঘটনায় প্রধান অভিযুক্ত ছিল বিজেপি নেতা বিশ্বনাথ মালিক। তাকে গ্ৰেফতারের পর শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা। বিজেপির আরামবাগ জেলা সভাপতি বিমান ঘোষ এদিন অভিযোগ করেন, ‘ওই অঞ্চলেই বিজেপির বুথ সভাপতি কাশীনাথ ঘোষকে খুন হয়। গোঘাট থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হলেও কিন্তু সেক্ষেত্রে অভিযুক্তদের এখনও গ্রেপ্তার করেনি পুলিশ। বেছে-বেছে বিজেপি কর্মীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে। পুলিশ পক্ষপাতিত্ব করছে।’ যদিও তৃণমূলের জেলা সভাপতি দিলীপ যাদব বিজেপির তোলা অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছেন, ‘বিজেপি যে অভিযোগ করছে তা মিথ‍্যা। খুনের ঘটনায় প্রশাসন নিরপেক্ষ তদন্ত করছে। এতে আমাদের কোন হস্তক্ষেপ নেই।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here