নিজস্ব প্রতিবেদক, বাঁকুড়া: নিজের নাইনএমএম পিস্তল দিয়ে কানের পাশে গুলি চালিয়ে আত্মহত্যা করলেন রাজ্য পুলিশের এক সাব ইন্সপেক্টর। বৃহস্পতিবার রাত ১১.৩০ টা নাগাদ ঘটনাটি ঘটেছে বাঁকুড়া জেলার শালতোডা থানায়। মৃত ওই সাব ইন্সপেক্টরের নাম বিশ্বনাথ মন্ডল। বাঁকুড়া জেলা পুলিশের শালতোডা থানাতেই কর্মরত ছিলেন তিনি। তার বাড়ি বাঁকুড়া জেলারই গঙ্গাজলঘাটি থানা এলাকায়।

পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, বছর দেড়েক আগে তিনি এএসআই থেকে সাব ইন্সপেক্টর পদে উন্নীত হন। পদোন্নতি হওয়ার পরেই তার প্রথম পোস্টিং হয় শালতোডা থানায়। বৃহস্পতিবার সকাল আটটা থেকে ঐ সাব ইন্সপেক্টর শালতোডা থানায় টেবিল ডিউটি শুরু করেন। ডিউটি শেষ হবার কথা ছিলো পরের দিন সকাল আটটায়। কিন্তু ডিউটি শেষ হওয়ার আগেই বৃহস্পতিবার রাত প্রায়  সাড়ে এগারোটা নাগাদ হঠাৎই নিজের নাইনএমএম সার্ভিস রিভলবার দিয়ে নিজের কানে গুলি করেন। সঙ্গে সঙ্গে থানার মেঝেতে লুটিয়ে পড়েন তিনি। গুলির আওয়াজ শুনে পুলিশ ব্যারাক থেকে অন্যান্য পুলিশকর্মীরা এলে নিচে পড়ে থাকতে দেখেন বিশ্বনাথ বাবুকে। তড়িঘড়ি তাকে শালতোডা ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকেরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে।
পুলিশের প্রাথমিক অনুমান সাংসারিক অশান্তির জেরেই আত্মহত্যা করেছেন ওই সাব ইন্সপেক্টর বিশ্বনাথ মন্ডল। এর পিছনে অন্য কোনও কারণ আছে কিনা তাও খতিয়ে দেখছে শালতোডা থানার পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here