থানায় ঢুকে মহিলা পুলিশকর্মীকে মার, জামিন অযোগ্য ধারায় গ্রেপ্তার বৈশাখী

0
583
kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সার্ভে পার্ক ও টালিগঞ্জের পরে এ বার ঘটনাস্থল হরিদেবপুর থানা। ফের শহরে আক্রান্ত পুলিশকর্মী। বাড়ির মালিক ও ভাড়াটিয়ার বিবাদ মেটাতে গিয়ে এ বার এক মহিলার মারে জখম হলেন হরিদেবপুর থানার এক মহিলা পুলিশকর্মী। কর্তব্যরত পুলিশ কর্মীদের গায়ে হাত দেওয়ার অভিযোগে এবং সরকারি কাজে বাধাদানের অভিযোগে বৈশাখী সিংহ নামে ওই মহিলাকে জামিন অযোগ্য ধারায় গ্রেফতার করেছে হরিদেবপুর থানার পুলিশ। আহ তাঁকে আদালতে তোলা হয়।

পুলিশ সূত্রে খবর, বৈশাখী সিংহ নামে এক মহিলা থানায় এসে অভিযোগ করেন তাঁর বাড়ির মালিকের বিরুদ্ধে। তিনি জানান ওই বাড়ির মালিক গৌতম কোলে নামে এক ব্যক্তি তাঁকে জোর করে বাড়ি খালি করে দেওয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করছেন। অভিযুক্ত বাড়ি মালিকের বিরুদ্ধে তিনি আরো অভিযোগ তোলেন, তাঁর পাওনা ১৪হাজার টাকা জোর করে আটকে রেখেছেন তিনি। বৈশাখী দেবীর অভিযোগ গ্রহণ করে তদন্তের জন্য থানায় ডেকে পাঠানো হয় বাড়ির মালিক গৌতম কোলেকে। পুলিশ সূত্রে খবর বুধবার গৌতম কোলে থানায় এসে জানান, তাঁর আসল ভাড়াটিয়া বৈশাখী দেবী নন, তাঁর ভাই রাজীব ভূঁইয়া। এর পরেই বিষয়টি মিটিয়ে নেওয়ার জন্য হরিদেবপুর থানাতে ডেকে পাঠানো হয় বৈশাখী সিংহকেও। থানায় আসার পর বৈশাখী দেবীকে তাঁর ভাইকে ডেকে পাঠানোর জন্য অনুরোধ করেন থানার আধিকারিকরা। অভিযোগ, এর পরেই মেজাজ হারাতে শুরু করেন ওই মহিলা। তার ভাইকে না ডেকে বাড়ির মালিকের কাছে টাকা দাবি করেন তিনি।

অভিযোগ প্রথম থেকেই মেজাজ হারিয়ে চড়া সুরে কথা বলতে শুরু করেন পুলিশ আধিকারিকদের সঙ্গে। তাঁকে বারবার সতর্ক করা হলেও সব অনুরোধ উপেক্ষা করে পুলিশ আধিকারিকদের সঙ্গে সুর চড়িয়ে ও ধমক দিয়ে কথা বলতে থাকেন তিনি। বচসায় জড়িয়ে পড়েন বাড়ির মালিক গৌতমবাবুর সঙ্গেও। সূত্রের খবর, এর পরেই তাঁদের বিবাদ মেটাতে ছুটে আসেন থানায় উপস্থিত এক মহিলা পুলিশকর্মী। তিনি তদন্তকারী আধিকারিকের ঘরে ঢুকে ওই মহিলাকে শান্ত করার চেষ্টা করলে, আচমকা তাঁর উপরেই চড়াও হন বৈশাখী দেবী। তাঁর অতর্কিত আক্রমণে জখম হন ওই মহিলা পুলিশকর্মী। তাঁকে এম আর বাঙুর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে প্রাথমিক চিকিত্সার পর ছেড়ে দেওয়া হয়। বৈশাখী সিংহকে বুধবার রাতেই আটক করা হয়। কর্তব্যরত পুলিশকর্মীর গায়ে হাত তোলা এবং সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে বৃহস্পতিবার সকালে তাঁকে গ্রেপ্তার করে হরিদেবপুর থানার পুলিশ। তাঁর বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here