রাজনাথের ‘তেজস’ অভিযান, জানেন আর কোন কোন বিশিষ্টরা উড়ান ভরেছেন যুদ্ধবিমানে?

0
320
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: সক্কাল সক্কাল জি- স্যুট পড়ে তেজসে চড়লেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং৷ তিনিই প্রথম প্রতিরক্ষামন্ত্রী যিনি তেজসে চড়লেন৷ বেঙ্গালুরুতে তেজস উড়ান শেষে জানালেন নিজের ‘রোমাঞ্চকর’ অভিজ্ঞতার কথা৷ জানেন এর আগে কোন কোন রাজনৈতিক নেতা বা মন্ত্রীরা এইভাবেই উড়ান ভরেছেন যুদ্ধবিমানে?

নির্মলা সীতারমণ- প্রতিরক্ষামন্ত্রী থাকাকালীন সুখোই ৩০ এমকেআইতে সওয়ার হয়েছিলেন নির্মলা সীতারমণ৷ ২০১৮ সালের ১৭ জানুয়ারি রাজস্থান থেকে সুখোই-৩০ এমকেআইকেআইতে জি স্যুট পড়ে উড়ান ভরেন তিনি৷ তিনি প্রথম মহিলা প্রতিরক্ষামন্ত্রী ছিলেন যিনি কোনও যুদ্ধবিমানকে সওয়ার হয়েছিলেন৷

কিরণ রিজিজু- সুখোই-৩০ এমকেআইয়ের কোলে বসে উড়ে গিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কিরণ রিজিজু ৷ পঞ্জাবের হালওয়ারায় বায়ুসেনার বেস ক্যাম্প থেকে সুপারসনিক বিমান সুখোই-৩০এমকেআইয়ের সওয়ার হয়েছিলেন কিরণ রিজিজু৷ প্রায় ৩০ মিনিট ধরে আকাশপথে ছিলেন তিনি৷

রাজিব প্রতাপ রুডি- এই একই যুদ্ধবিমানে সওয়ার হয়েছিলেন এক বিজেপি নেতাও৷ রাজীব প্রতাপ রুডি নামে ওই নেতা সুখোই-৩০ এমকেআইতে চেপেছিলেন ২০১৫ সালে বায়ুসেনা অ্যারো ইন্ডিয়ার শো চলাকালীন৷

রায় ইন্দ্রজিত সিং– ওই একই বছরে অর্থাত ২০১৫তে ততাকালীন কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী রাও ইন্দরজিত সিং দিল্লির অদূরে হিন্ডন এয়ার বেস থেকে এসইউ-৩০তে সওয়ার হয়েছিলেন৷

প্রতিভা পাতিল- ২০০৯ সালের ২৫ শে নভেম্বর যুদ্ধবিমানে চড়ে ঐতিহাসিক নজির গড়েছিলেন ভারতের প্রাক্তন মহিলা রাষ্ট্রপতি প্রতিভা পাতিল৷ পুনের বায়ুসেনার এয়ারবেস থেকে সুখোই -৩০ এমকেআই এর ককপিটে চেপে উড়ান ভরেছিলেন প্রতিভা পাতিল৷ প্রায় ৪০ মিনিট আকাশপথে কাটান তিনি৷

এপিজে আবদুল কালাম- ২০০৬ এর ৮ জুন ভারতের প্রথম রাষ্ট্রপতি হিসেবে যুদ্ধবিমানে সওয়ার সওয়ার হয়েছিলেন এপিজে আবদুল কালাম৷ সুপারসনিক গতিতে প্রায় ৪০ মিনিট আকাশের বুকে কাটিয়েছিলেন আবদুল কালাম৷

জর্জ ফার্নান্ডিজ- ২০০৩ এর ২২ জুন এনডিএ সরকারের প্রথম প্রতিরক্ষামন্ত্রী হিসেবে সুখোইতে চেপেছিলেন জর্জ ফার্নান্ডেজও৷ লোহেগাঁও বায়ুসেনার এয়ার বেস ক্যাম্প থেকে সুখোই-৩০ যুদ্ধবিমানে চড়েন তিনি৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here