ডেস্ক: কড়া নিরাপত্তার মোড়কে মুড়ে শুরু হল ত্রিস্তর পঞ্চায়েত নির্বাচনের ভোট গণনা। রাজ্যের মোট ২৯১ টি গণনাকেন্দ্রে সশস্ত্র নিরাপত্তারক্ষী সহ থাকছে ত্রিস্তরিয় নিরাপত্তা বলয়। গণনাকেন্দ্রের ২০০ মিটারের মধ্যে জারি থাকবে ১৪৪ ধারা। গণনাকেন্দ্রের মধ্যে মোবাইল নিয়ে প্রবেশের উপর থাকছে নিষেধাজ্ঞা। তবে এক্ষেত্রে ছাড় দেওয়া হয়েছে নির্বাচন আধিকারিকদের।

তবে এত নিরাপত্তাবেষ্টনির মাঝেও বেশ কয়েকটি জায়গায় বিখিপ্ত কিছু অশান্তির খবর পাওয়া গিয়েছে। যেমন, মুর্শিদাবাদের ভগবানগোলায় সিপিএম এজেন্টকে গণনাকেন্দ্র থেকে বের করে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে শাসকদলের বিরুদ্ধে। অন্যদিকে, উত্তর দিনাজপুরের চোপড়ায় ভোটগণনা সুরুর আগেই ব্যাপক অশান্তির অভিযোগ। গুলি বোমাবাজি সহ এক কংগ্রেস নেতার গাড়ি ভাংচুউর করে বিরোধীরা। ঘটনার জেরে থানায় বিক্ষভ দেখাতে শুরু করেছে বিরোধী শিবির। রাজারহাটের চাঁদপুরে মাছিভাঙায় ভোটগণনা ঘিরে ব্যাপক অশান্তির খবর পাওয়া গিয়েছে। এই ঘটনায় আক্রান্ত হয়েছেন এক নির্দল প্রার্থীর এজেন্ট। অভিযোগ তির শাসক দলের বিরুদ্ধে। যদিও অভিযোগ অস্বীকার তৃণমূলের। এছাড়া দুই ২৪ পরগণায় বিক্ষিপ্ত কিছু অশান্তির খবর পাওয়া গিয়েছে।

এদিকে সকাল ৮ টা থেকে জেলায় জেলায় শুরু হয়েছে ভোট গণনাপর্ব। তবে বেশ কয়েকটি জেলায় ৯ টার পরে শুরু হয়েছে ভোট গণনা। কমিশন চাইছে ২ থেকে ৩ রাউন্ডের মধ্যে ভোট গণনা শেষ করতে আর সেজন্য গণনাকেন্দ্রে বাড়ানো হতে পারে টেবিলের সংখ্যাও। উল্লেখ্য, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ৩৪ শতাংশ আসনে তৃণমূল জয়লাভ করার ফলে এই সব কেন্দ্রগুলিতে ভোট ভোটগণনার প্রয়োজন হচ্ছে না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here