kolkata news
Highlights

  • পুলকার দুর্ঘটনায় ছাত্র মৃত্যুর ঘটনার পর রাজ্যজুড়ে পুলকার ব্যবস্থা নিয়ে উদাসীনতার অভিযোগ আনলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ
  • তিনি উদাসীনতার অভিযোগ এনেছেন প্রশাসনের বিরুদ্ধে
  • রাজ্য প্রশাসনের প্রয়োজনীয় তৎপরতার অভাবকেই দায়ী করেন তিনি


নিজস্ব প্রতিনিধি, মেদিনীপুর:
পুলকার দুর্ঘটনায় ছাত্র মৃত্যুর ঘটনার পর রাজ্যজুড়ে পুলকার ব্যবস্থা নিয়ে উদাসীনতার অভিযোগ আনলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি তথা সাংসদ দিলীপ ঘোষ। তিনি উদাসীনতার অভিযোগ এনেছেন প্রশাসনের বিরুদ্ধে। শনিবার মেদিনীপুর শহরে একটি অনুষ্ঠানে এসে এই ধরনের ঘটনার পেছনে রাজ্য প্রশাসনের প্রয়োজনীয় তৎপরতার অভাবকেই উল্লেখ করেন।

শনিবার মেদিনীপুর শহরের স্পোর্টস কমপ্লেক্স মাঠে একটি বেবি ফুটবল লিগ- এর আয়োজন করা হয়েছিল। পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা নেহরু যুব কেন্দ্রের উদ্যোগে এই আয়োজন করা হয়েছিল। যেখানে জেলার নটি ব্লক থেকে অনূর্ধ্ব চোদ্দ বালকদের ফুটবল দলকে বেছে নিয়ে চূড়ান্ত পর্বের খেলার আয়োজন করা হয়েছিল স্পোর্টস কমপ্লেক্সে। শনিবার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন দিলীপ ঘোষ। ছিলেন বিজেপি জেলা সভাপতি সমিত দাস-সহ অন্যান্য নেতারা।

অনুষ্ঠানে পর সংবাদমাধ্যমের সামনে দিলীপ ঘোষ পুলকার দুর্ঘটনা নিয়ে মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, দুর্ঘটনাটা দুর্ঘটনাই, তবে এটা প্রথম নয়। পুলকার নিয়ে অভিযোগ সব দিনই রয়েছে। কিন্তু এটাকে দেখার বা ব্যবস্থাটা সুষ্ঠু করার চেষ্টা কোনওদিনই হয়নি। স্কুলের গাড়িকে বিশেষ নজর দেওয়া উচিত পুলিশের। বিদেশে দেখেছি, স্কুল বাস রাস্তা দিয়ে গেলে কোনও গাড়ি তাকে ওভারটেক করে না। স্কুল বাস থেকে নেমে বাচ্চারা রাস্তা ক্রস করলে তার পরে গাড়ি পার হয়। বিদেশ শিশুর ভবিষ্যৎ নিয়ে এত চিন্তিত। আমাদের দেশে কবে শুরু হবে? সরকারের চেষ্টা করা উচিত। পুলিশের বিশেষ ভাবে এটা দেখা উচিত, যাতে আগামী দিনে এই ধরনের ঘটনা আর না ঘটে।

পাশাপাশি, এদিন সংবাদমাধ্যমের সামনে আসন্ন পুর নির্বাচন ইস্যুতে শাসক দল ও অন্যান্যদের কটাক্ষ করেছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেন, আমরা পুর নির্বাচন কখনওই পিছিয়ে দেওয়ার কথা বলিনি। যারা এক বছর পিছিয়ে দিয়েছেন পুর নির্বাচনকে, তারা বোধহয় এমনটা ভাবছেন। বরং আমাদের এগোনো দেখে ওনারা ভয় পাচ্ছেন। ইলেকশন করুন আমরা তৈরি আছি। সারা ভারতবর্ষে বিজেপি একা লড়ছে। এরাজ্যেও একাই লড়ে দেখাবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here