kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: ‘পলিটিক্স ইজ দ্য আর্ট অফ পসিবিলিটিজ’, অর্থাৎ রাজীতি হল সম্ভাবনাময় শিল্প। রাজনীতিতে ভবিষ্যতে কী হবে, তা আগাম বলা যায় না। অনেকগুলি সম্ভাবনার পথ খোলা থাকে সর্বদা। আর তাই নিয়ে চলতে থাকে নানান চর্চা। কে কার সঙ্গে যাবে, কে কার হাত ধরবে- এই নিয়ে সাধারণ মানুষ চায়ের কাপে তর্কের তুফান তোলে। প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরির একটি কথাতে আবার সেই চর্চা চলছে রাজনৈতিক মহলে।

​অধীরের কাছে জানতে চাওয়া হয়, পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভার ফল ত্রিশঙ্কু হলে কী হবে? এই প্রশ্নের সরাসরি কোনও উত্তর না দিয়ে সম্ভাবনার একটি কথা বলেন তিনি। অধীর বলেন, ‘পলিটিক্স ইজ দ্য আর্ট অফ পসিবিলিটিজ’। তিনি বলেছেন, ‘আমরা নবান্ন দখলের লক্ষ্যে এগোচ্ছি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কোথায় যাবেন তা আমরা জানি না। এমনও হতে পারে সংযুক্ত মোর্চার নবান্ন দখল করতে যাচ্ছে, আর বাঁচার জন্য সঙ্গী হলেন মমতা। এটা উড়িয়ে দেওয়া যায় না। কারণ ‘পলিটিক্স ইন আর্ট অফ পসিবিলিটিজ’। তাঁর ইঙ্গিতপূর্ণ কথায় পরিষ্কার ভোট-পরবর্তী জোটের সম্ভাবনা খারিজ করে দেননি প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরি।

​কোনও কোনও মহল থেকে বলা হচ্ছে, তৃণমূল বা বিজেপি কেউ হয়তো এবার সংখ্যাগরিষ্ঠতা নাও পেতে পারে। সেক্ষেত্রে এই রাজ্যে বিধানসভার ফল ত্রিশঙ্কু হয়ে যেতে পারে। আর এমন যদি হয়, তখন কী হবে? কে কার সঙ্গে জোট করবে? এই প্রশ্ন নিয়ে এখন থেকেই চর্চা শুরু হয়েছে। তবে এই প্রশ্ন এখন আবর্তিত হচ্ছে না রাজনৈতিক মহলে। তর্কের আসর জমাচ্ছে সাধারণ মানুষ। আর সেই বিষয়টি নিয়ে এবার ইঙ্গিতপূর্ণ উত্তর দিলেন অধীর চৌধুরি। যা ভোটের আবহে অত্যন্ত ইঙ্গিতপূর্ণ বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here