kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: আজ কংগ্রেসের পক্ষ থেকে রাজভবনে মাননীয় রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়ের সঙ্গে দেখা করল প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্রের নেতৃত্বে এক প্রতিনিধি দল। প্রতিনিধি দলে সোমেন মিত্রের সঙ্গে ছিলেন সাংসদ প্রদীপ ভট্টাচার্য, আব্দুস সাত্তার, অমিতাভ চক্রবর্তী, শুভঙ্কর সরকার।

প্রতিনিধি দলের পক্ষ থেকে রাজ্যপালের মাধ্যমে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে এ বার্তা স্পষ্টভাবে পাঠানো হয় যে,
এনআরসি নিয়ে এ রাজ্যের মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়েছে, কিছু মানুষ সেই আতঙ্কে আত্মহত্যাও করেছেন। পশ্চিমবঙ্গের ভৌগোলিক ও ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপটের বিচারে পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি প্রয়োগের যে প্রয়োজন নেই, সে কথাও প্রতিনিধি দলের তরফে এদিন রাজ্যপালকে স্পষ্টভাবে জানানো হয়।

বাংলায় এনআরসির বিরোধিতা করে আগে থেকেই সুর চড়িয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এমনকি দিল্লিতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে বৈঠক করার পর বাংলায় এনআরসি না হওয়া নিয়েই আশ্বাস দিয়েছেন মমতা। কিন্তু অপরদিকে, পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি আতঙ্কে মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়তেই তা মুখ্যমন্ত্রীর দিকেই চাপায় বিজেপি। দিলীপ ঘোষ সরাসরি বলেন, কারও মৃত্যু হলে সেটার জন্য মুখ্যমন্ত্রীই দায়ী। তাঁর কথায়, বিজেপি বাংলায় এনআরসি নিয়ে কোনও প্রচার করেনি, আতঙ্ক ছড়াচ্ছেন মমতা নিজেই। এবার রাজ্যপালের কাছে গিয়ে কংগ্রেসের এনআরসি নিয়ে বক্তব্য মুখ্যমন্ত্রীর হাতকেও যে শক্ত করল তা বলাই বাহুল্য।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here