মহানগর ওয়েবডেস্ক: একদিকে বিশ্বজয়ের উদ্দেশ্যে ট্রাম্পকে পাশে নিয়ে আমেরিকার মঞ্চকে রীতিমতো কাঁপিয়ে দিয়েছেন নরেন্দ্র মোদী। আর এদিকে একুশের বৈতরণী পার করতে প্রশান্ত কিশোরের নৌকায় চেপে ভ্রূ কুঞ্চিত হল তৃণমূলের। আর হবে না বা কেন, এককালে প্রশান্ত কিশোরেরই ক্লাইন্ট নরেন্দ্র মোদী মার্কিন মঞ্চ থেকে এমন ভূমিকম্প তুললেন যে তাতে কেঁপে উঠলেন পিকে। মোদীর প্রশংসা না আর থাকতে পারলেন না। ভুলেই গেলেন এখন মোদীর ঘোর বিরোধী ‘শত্রু’ তৃণমূল তাঁর মক্কেল। এই প্রশংসা সেখানে কতখানি প্রভাব ফেলতে পারে। যদিও পিকের মুখে মোদীর প্রশংসায় কতখানি খেপে উঠেছে তৃণমূল তা জানা না গেলেও, তৃণমূলের সন্দেহের ভ্রূ যে বেশ কুঞ্চিত হয়েছে তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

রবিবার রাতে ট্রাম্পকে পাশে নিয়ে আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ট্রাম্পকে ভোট দেওয়ার আবেদন জানান নরেন্দ্র মোদী। মঞ্চ থেকে নিজের দেশে ভীষণ ভাবে জনপ্রিয় সেই স্লোগান তুলে তিনি বলেন, আবকি বার ট্রাম্প সরকার। দেশ ছাড়িয়ে বিদেসের মাটিতে মোদীর এহেন ভোট প্রচার মন কেড়ে নিয়েছে ‘ভোট গুরু’ প্রশান্ত কিশোরের। আর থাকতে না পেরে মোদীর গালভরা প্রশংসা করে সকাল ১০ টা নাগাদ টুইটে পিকে জানিয়ে দিলেন, এতো অভুতপূর্ব। নিজের টুইটে এদেন কিশোর লেখেন, ‘আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে কিছুটা ব্যাকফুটে থাকা ডোনাল্ড ট্রাম্পের হয়ে মোদী যা করলেন তা ভীষণভাবেই স্মার্ট।’ এরপরই রীতিমতো কোট করে তিনি বলেন, ‘মোদী এখানে সংখ্যাটাকেই হাতিয়ার করেছেন (অর্থাৎ আমেরিকান ইন্ডিয়ান)। আর কে না জানে গণতন্ত্রে সংখ্যাটাই সব। এর আগে এত ভালো কৌশল কোনও প্রধানমন্ত্রী ব্যবহার করেননি।’ উল্লেখ্য, গতকালের ঘটনার পর আমেরিকার থেকে কৌশলগত জায়গাতেও বাড়তি সুবিধা আদায় করে নিয়েছেন মোদী। গোটা বিষয়টিই এদিন উঠে আসে প্রশান্ত কিশোরের কথায়। তবে পিকের এহেন বক্তব্যের পর বেশ কিছুটা বিভ্রান্ত তৃণমূল।

বলতে গেলে তৃণমূলে এখন হত্তাকত্তা বিধাতা প্রশান্ত কিশোর। তাঁর ভরসায় বাংলায় বিজেপির দাপাদাপি থামিয়ে ফের নবান্ন দখল করতে চায় ঘাসফুল তবে প্রশান্ত কিশোর যা শুরু করেছেন তাতে হাওয়া ভালো ঠেকছে না তৃণমূলের। দলের অন্দরে অনেকের দাবি, ঘরের শত্রুর এত প্রশংসা যদি ঘরের লোকের মুখে শোনা যায়, তবে তা কোনও ভাবেই ভালো লক্ষন নয়। এদিকে একেবারে শুরু থেকে যদি দেখা যায়, সম্প্রতি মমতার দিল্লি গিয়ে মোদী ও অমিত শাহের সাক্ষাৎ প্রশান্ত কিশোরের পরামর্শেই বলে অনুমান রাজনৈতিক মহলের, এরপর এভাবে মোদীর প্রশংসা প্রশান্তের মুখে অনেকেই সেটিংয়ের রাস্তা দেখছে। পাশাপাশি, আরও জানা যাচ্ছে বেশ কিছুদিন ধরে প্রশান্ত কিশোরের সঙ্গে সম্পর্ক টালমাটাল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। পিকের একাধিক পরামর্শ রীতিমতো উপেক্ষা করেছেন তিনি। ঘনিষ্ঠ মহল সূত্রের খবর, পিকের উপর যারপরনাই বিভ্রান্তও তিনি। এ সবকিছুর মাঝে কিশোরের মুখে মোদীর স্তুতি ভালোভাবে নিচ্ছে না তৃণমূল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here