news bengali

মহানগর ওয়েবডেস্ক: রাজ্য সরকার জানিয়েছিল আগামী ১ জুন থেকে খুলে যাবে রাজ্যের সমস্ত মন্দির মসজিদ গীর্জার দরজা। মমতার সুরে সুর মিলিয়ে ৮ জুন ধর্মীয় স্থান খোলার নির্দেশিকা দিয়েছে কেন্দ্র। তবে রাজ্য কেন্দ্র দুপক্ষই ধর্মীয় স্থান খোলার সম্মতি দিলেও সে নির্দেশ পালন করতে রাজি নয় দেশের ইমামদের সংগঠন। এই সংগঠনের তরফ স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে কোনভাবেই করোনার মাঝে খোলা হবে না মসজিদের দরজা। ইমামদের এহেন নির্দেশিকাকে সমর্থন করেছে টিপু সুলতান মসজিদ ও নাখোদা মসজিদ।

সম্প্রতি এক বিবৃতিতে ইমাম সংগঠনের চেয়ারপারসন মহম্মদ ইয়া জানান, গত দুমাস ধরে মুসলিম ভাইবোনেরা বাড়িতেই তাদের প্রার্থনা সারছেন। এমনকি ঈদের প্রার্থনাও বাড়িতেই সারা হয়েছে। প্রয়োজন হলে আরো কিছুদিন বাড়িতে বসেই প্রার্থনা করতে তৈরি তারা। তবে সরকারের তরফে যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে সেই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে ইমাম সংগঠন। সমস্ত দেশবাসীকে তাদের তরফে অনুরোধ জানানো হয়েছে, যে কোনো রকম জমায়েত এড়িয়ে থাকার জন্য। করোনা পরিস্থিতির দিকে নজর রেখেই আগামী দিনে মসজিদ খোলা হবে কিনা সে সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে ইমাম সংগঠনের তরফে।

এদিকে শুধু মসজিদ নয় আগামী ১ জুন থেকে রাজ্যের সমস্ত মন্দির মসজিদ গির্জা খুলে দেওয়ার অনুমতি দেওয়া হলেও, মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ মানতে ইচ্ছুক নয় দক্ষিণেশ্বরের কালী মন্দির এবং তারাপীঠের মন্দির কর্তৃপক্ষ। এই দুই মন্দির কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হয়েছে আপাতত ১৫ দিন মন্দির বন্ধ রাখা হবে। পরে গোটা পরিস্থিতি বিচার করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে মন্দির খোলা হবে কিনা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here