petrol
petrol

ডেস্ক: ভোটের দায়ে আটকে ছিল দাম, কিন্তু কর্ণাটক ভোট তো শেষ। আপাতত আর ভোট দেবেন না মানুষ। তাই ভোটপর্ব মিটতেই এভারেস্ট ছুঁয়ে ফেলল পেট্রোল-ডিজেলের দাম।

গত কয়েকমাস ধরেই যেন ইন্সটলমেন্টে বেড়ে চলেছে এই দুই পেট্রোপণ্যের দাম। জিএসটি স্লাবে অন্তর্ভুক্ত করার চিন্তা-ভাবনা করা হচ্ছে। এই বলেই ঘাড় থেকে দায়িত্ব ঝেড়ে দিয়েছিলেন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি। চলতি বছরে রবিবার পেট্রোল-ডিজেলের দাম গিয়ে পৌঁছাল সর্বোচ্চ শৃঙ্গে। ৩৩ পয়সা বেড়ে রবিবার পেট্রোলের দাম দাঁড়িয়েছে লিটার প্রতি ৭৬.‌২৪ টাকা। ২৬ পয়সা বেড়ে ডিজেল হয়েছে ৬৭.‌৫৭ টাকা। কলকাতায় রবিবার পেট্রোলের দাম ছিল ৭৮.৯১টাকা, যাকে ৭৯ টাকাই বলা চলে। অন্যদিকে ডিজেলের দাম ছিল ৭০.১২ টাকা।

কলকাতা বাদ দিলে বাকি মেট্রো শহরগুলিতে পেট্রোলের দামে নাভিশ্বাস ওঠার যোগার সাধারণ মানুষের। বলাই বাহুল্য এই দুই জ্বালানির দামের উপরই দ্রব্যমূল্য অনেকটাই নির্ভর করে। ফলে আচমকা এই দাম বাড়ার নেতিবাচক প্রভাব বাজারের উপরও পড়বে এবং পকেটের রক্তক্ষরণ বাড়বে সাধারণ মানুষের। বাণিজ্য নগরী মুম্বইতে রবিবার পেট্রোলের দাম ছিল ৮৪.‌০৭ টাকা এবং ডিজেল লিটার প্রতি ৭১.‌৯৪ টাকা। আন্তর্জাতিক বাজারে ব্যারেল পিছু তেলের দামের বৃদ্ধির জন্যই দেশে পেট্রোপণ্যের দামে এই মূল্যবৃদ্ধি বলে জানা গিয়েছে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here