মহানগর ওয়েবডেস্ক: গালোয়ানে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের পর শুক্রবার সকালে সেনা জওয়ানদের মনোবল বৃদ্ধি করতে লাদাখে পৌঁছন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আপাত নজরে তাঁর এই সারপ্রাইজ ভিজিট সেনার মনোবল বৃদ্ধি করার জন্য হলেও এর গভীর প্রভাব পড়তে চলেছে ভারত চিন সম্পর্কে। প্রধানমন্ত্রীর এই আচমকা পদক্ষেপে নিজের আগ্রাসন কিছুটা হলেও নিয়ন্ত্রণে রাখতে বাধ্য হবে চিন।

এদিন সকালে প্রথম সেনা প্রধান ও সিডিএসকে নিয়ে নিমু ঘাঁটিতে পৌঁছন মোদী। সেখানে পরিস্থিতি নিরিক্ষণ ও পর্যবেক্ষণ করে ভাষণ দেন সেনাবাহিনীর উদ্দেশে। এদিন সেনার উদ্দেশে প্রায় আধা ঘণ্টা ভাষণ দেন মোদী। এরপর লেহতে সেনা হাসপাতালে পৌঁছে যান তিনি। সেখানে উপস্থিত হয়ে গালোয়ান ঘাঁটির সংঘর্ষে আহত হওয়া জওয়ানদের সঙ্গেও দেখা করেন। নিজের কথার মাধ্যমে তাদের উদ্বুদ্ধ করার চেষ্টা করেন।

আহত জওয়ানদের সঙ্গে আলাপচারিতা শেষে মোদী বলেন, ‘যে বীর সন্তানরা আমাদের ছেড়ে গিয়েছেন, তারা সবাই মুখের মতো জবাব দিয়েছিলেন। আপনাদের সাহসিকতা, যে রক্ত আপনারা ঝরিয়েছেন তা আমাদের দেশের যুবা এবং পরবর্তী প্রজন্মকে অনুপ্রেরণা দেবে। আজ গোটা বিশ্বের কাছে একটা বার্তা গিয়েছে। যেভাবে আপনারা লড়েছেন, গোটা বিশ্ব জানতে চায় কারা এই যোদ্ধা? কীভাবে তারা প্রশিক্ষণ নেয়।’

মোদী আরও বলেন, আমাদের দেশ কোনও দিন পৃথিবীর কোনও শক্তির কাছে মাথা নত করেনি, কোনও দিন করবে না। আপনাদের পাশাপাশি আপনাদের মা’কেও আমি শ্রদ্ধা জানাই যারা আপনাদের মত সাহসীদের জন্ম দিয়েছেন। আশা করব সকলে সুস্থ হয়ে উঠবেন তাড়াতাড়ি।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here