corona modi

মহানগর ডেস্ক: করোনা টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বৃহস্পতিবার সকালে এইমসে গিয়ে করোনা টিকার দ্বিতীয় ডোজ নেন তিনি। এরপরেই টুইটে তিনি দেশবাসীকে করোনার টিকা নেওয়ার জন্য আহ্বান করেন। তিনি টুইটারে লেখেন, করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য টিকা অন্যতম হাতিয়ার। আপনি যদি করোনার টিকা নেওয়ার জন্য উপযুক্ত হন, তাহলে আজকেই নাম নথিভুক্ত করান।

১ মার্চ থেকে দেশের ষাটোর্ধ্ব ও ৪৫-য়ের ওপর কো-মর্বিটি থাকা নাগরিকদের জন্য করোনার টিকা সুবিধা দেওয়া হয়। সেইদিনই সকালে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি করোনার টিকা নেন। তিনি করোনার টিকা নেওয়ার ছবি ফেসবুকে পোস্ট করেন। দেশবাসীকে করোনার টিকা নেওয়ার জন্য আবেদন করেন। প্রধানমন্ত্রীর পরেই দেশের একের পর এক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী করোনার টিকা নেন। বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী করোনার টিকা নেন। পাশাপাশি দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং করোনার টিকা নেন।

প্রসঙ্গত, দেশে এখনও নয় কোটির বেশি টিকা  করণ হয়েছে। ১ এপ্রিল থেকে করোনার টিকাকরণের তৃতীয় পর্যায় শুরু হয়েছে। এখানে ৪৫ বছরের ঊর্ধ্বে যে কোনও নাগরিক করোনার টিকা নিতে পারবেন। কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়েছে, খুব শীঘ্রই করোনা টিকাকরণের ক্ষেত্রে বয়সের সীমা তুলে দেওয়া হবে। এক ফলে ভারতের যে কোনও নাগরিক করোনার টিকা নিতে পারবেন।

করোনা টিকা করণের পাশাপাশি দেশে সংক্রমণের হার ক্রমেই বাড়তে শুরু করেছে। বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য মন্ত্রকের পরিসংখ্যাণ অনুযায়ী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এক লক্ষ ২৬ হাজার ৭৮৯ জন। ৬৮৫ জন করোনায় মারা গিয়েছেন। গত কালের তুলনায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১০ হাজার বেশি। করোনা থেকে সুস্থের হাক অনেকটাই কম। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ৫৯ হাজার ২৯৮ জন। দেশে করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। দেশে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে দেশের সমস্ত মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here