ডেস্ক: সুপ্রিম কোর্টের রায় অমান্য করে নাগরিকদের আধার তথ্যে নজরদারি চালানোর অধিকার চাইছে বেসরকারি সংস্থা ও আর্থিক সংস্থাগুলি। তাদের দাবি, ব্যবসায়িক স্বার্থেই আমজনতার আর্থিক, সাংসারিক লেনদেনের দিকে নজর দেওয়া জরুরি। আর ঠিক এই কারণেই সুপ্রিম রায়ের বিরুদ্ধে সরব হচ্ছে তারা।

ইন্টারনেট অ্যান্ড মোবাইল অ্যাসোসিয়েশন অফ ইন্ডিয়ার ব্যবসায়িক অংশীদার হল দ্য পেমেন্টস কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া বা পিসিআই। কর্তৃপক্ষের তরফে জানান হয়েছে, সু্প্রিম কোর্টের আধার রায়ের বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে আবেদন জানান হবে। এই বিষয় নিয়ে বিভিন্ন সংস্থার সঙ্গে বৈঠকও করেছেন তারা। পিসিআই আশঙ্কা করছে, নাগরিকদের আধার তথ্য ব্যবহার করার ইস্যুটির যদি এই মূহূর্তে সমাধান না হয় তবে প্রযুক্তিগতভাবে তারা অনেকটাই পিছিয়ে পড়বে। এই জেরে ক্ষতিগ্রস্ত হবে ডিজিটাল পেমেন্ট ব্যবস্থাও। এই জন্যই আধারের অধিকার নিজেদের কাছে রাখতে চেয়ে নমো সরকারের কাছে আর্জি জানাবে পিসিআই।

মোবাইল বা ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে আধার লিঙ্ক বাধ্যতামূলক আর না থাকায় প্রচুর মানুষ আধার ডি-লিঙ্ক করা শুরু করে দিয়েছেন। বেসরকারি সংস্থা ও আর্থিক সংস্থাগুলির বক্তব্য, যেহেতু তাদের ব্যবসায়িক কৌশল আধারের ওপর নির্ভরশীল সেহেতু আধার সংযোগ না হলে তাদের ব্যবসায়ে চরম ক্ষতি হবে। ব্যবসায়িক নিরাপত্তারও অন্যতম ভিত্তি ছিল নাগরিকদের আধারের গোপন তথ্য। সেক্ষেত্রে, সুপ্রিম কোর্টের রায়দানের পর বহু কোটি মানুষ এইসব সংস্থাগুলিকে তাদের আধার তথ্য দেবেন না, তাই বিপদের মুখে পড়েছে সংস্থাগুলি। তাই তারা কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে আবেদন করবে যাতে, সংসদে এমন বিল পাশ হয় যেখানে নাগরিকদের আধারের তথ্য ওই সব বেসরকারি সংস্থা ও আর্থিক সংস্থাগুলির হাতে থাকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here