priyanka Gandhi

মহানগর ওয়েবডেস্ক: মোদী সরকারের কৃষি বিলকে কেন্দ্র করে গোটা দেশের কৃষক সম্প্রদায়। তুমুল বিক্ষোভ আন্দোলনে নেমেছেন পাঞ্জাব হরিয়ানা কৃষকরা। অনৈতিকভাবে বিল পাস করানোর পাশাপাশি একে কৃষকের মৃত্যু পরোয়ানা বলে দাবি করা হয়েছে বিরোধীদের তরফে। সরকারের বিরুদ্ধে রীতিমতো সরব হয়ে উঠেছে কংগ্রেস। কৃষক ও শ্রমিক সমাজের দুই শ্রেণীকে একত্রিত হয়ে আন্দোলনে নামার ডাক দেওয়া হয়েছে কংগ্রেসের তরফে। এহেন অবস্থায় মাঝেই শুক্রবার বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে তীব্র আক্রমণ জানিয়েছেন কংগ্রেসের মহাসচিব প্রিয়াঙ্কা গান্ধী।

শুক্রবার কৃষি বিলের প্রেক্ষিতে সরকারের বিরুদ্ধে সরব হয়ে একটি টুইট করেন কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। যেখানে তিনি লেখেন, ‘কৃষকের থেকে তাদের প্রাপ্য দাবি ন্যূনতম সহায়ক মূল্য ছিনিয়ে নেওয়া হবে। তাদের চুক্তিভিত্তিক কৃষি কাজের মাধ্যমে কোটিপতিদের গোলাম হতে বাধ্য করা হবে। নামের মিলবে প্রাপ্য মজুরি, না মিলবে সম্মান। নিজের চাষের জমিতে নিজেরা কোটিপতিদের শ্রমিক হয়ে যাবে। বিজেপি কৃষি বিল ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির কথা মনে করিয়ে দিচ্ছে। ভয়াবহ এই অন্যায় কোনভাবেই হতে দেব না আমরা।’ প্রিয়াঙ্কার পাশাপাশি এদিন এক ভিডিও শেয়ার করে কংগ্রেসের মুখপাত্র রণদীপ সূর্যেওয়ালা বলেন, পেটে খিদে ও মনে চূড়ান্ত আঘাত নিয়ে দেশের অন্নদাতা কৃষক ও ভাগ্যবিধাতা ক্ষেতমজুর আজ ভারত বনধ করতে বাধ্য। অহংকারী মোদী সরকারের চোখে তাদের যন্ত্রণা ধরা পড়ছে না। আসুন ভারত বনধে কৃষক শ্রমিকের পাশে দাঁড়াই এবং লড়াইয়ের সংকল্প নেই।

প্রসঙ্গত কৃষিবিলকে কেন্দ্র করে ইতিমধ্যেই রণক্ষেত্রে চেহারা নিয়েছে গোটা দেশ। ভারতীয় কৃষক ইউনিয়নসহ একাধিক কৃষক সংগঠন ভারত বনধে শামিল হয়েছে। তাদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে বিরোধী রাজনৈতিক দল কংগ্রেস আরজেডি সমাজবাদী পার্টি আকালি দল, আপ, টিএমসি সহ আরও একাধিক দল। ইতিমধ্যেই পাঞ্জাবে তিনদিনের জন্য রেল অবরোধের ডাক দিয়েছে কৃষকরা। সবমিলিয়ে পরিস্থিতি রীতিমতো উত্তেজনাপূর্ণ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here