জাতীয়তার নামে কাশ্মীরিদের গণতন্ত্র হরণ করা হচ্ছে: প্রিয়াঙ্কা

0
380
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: দেশপ্রেম ও রাজনীতির নামে কাশ্মীরে গণতন্ত্রকে হত্যা করা হচ্ছে৷ রবিবার ট্যুইট করে এমনটাই স্পষ্ট অভিযোগ করলেন কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা বঢড়া গান্ধী৷ উল্লেখ্য গতকাল রাহুল গান্ধীদের কাশ্মীরে ঢুকতে দেয়নি প্রশাসন৷ অভিযোগ, তাঁর সঙ্গের সাংবাদিকদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেছে স্থানীয় প্রশাসন৷ এক বছর ধরে জম্মু-কাশ্মীরে রাষ্ট্রপতি শাসন জারি রয়েছে৷ এদিন প্রিয়াঙ্কা একগুচ্ছ ট্যুইট করে কাশ্মীর নিয়ে সরকারি নীতির কঠোর সমালোচনা করেছেন৷ তাঁর সাফ কথা, কংগ্রেস গোড়া থেকেই জম্মু-কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা লোপ ও উপত্যকাকে খণ্ডিত করার বিরোধিতা করে আসছে৷ সেই প্রসঙ্গ তুলে প্রিয়াঙ্কার সাফ অভিযোগ, কাশ্মীরে মোদী সরকার গণতন্ত্রকে হত্যা করেছে৷ আরও একটি ট্যুইটে তাঁর আরও অভিযোগ, জাতীয়তাবাদ, রাজনীতিকে ছাপিয়ে প্রধান আলোচ্য বিষয় হয়ে উঠেছে কাশ্মীরিদের গণতন্ত্র অপহরণের মতো বিষয়৷ উপত্যকাবাসীদের গণতন্ত্র ফিরিয়ে দেওয়ার জন্য কংগ্রেস আন্দোলন চালিয়ে যাবে বলে সাফ জানান তিনি৷

জম্মু থেকে ১৪৪ ধারা উঠে গেলেও কাশ্মীরে এখনও তা পুরোপুরি উঠে যায়নি৷ প্রিয়াঙ্কা বঢড়া গান্ধী বিশ্বাস করেন কাশ্মীরের আমজনতার সঙ্গে বিরোধীদের কথা না বলতে গিয়ে প্রশাসন প্রমাণ করছে যে উপত্যকায় কোনও গণতন্ত্র নেই৷ সেই সঙ্গে তিনি একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন৷ যেখানে এক কাশ্মীরি মহিলাকে রাহুলের সঙ্গে  কথা বলতে দেখা গিয়েছে৷

শ্রীনগর বিমানবন্দর থেকে গতকাল রাহুলদের ফিরিয়ে দেয় প্রশাসন৷ এই নিয়ে রাহুল জানান, জম্মু-কাশ্মীরের রাজ্যপাল সত্যপাল সিং নিজেই আমাকে কাশ্মীরে আসার নিমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন৷ তিনি দাবি করেছিলেন উপত্যকা স্বাভাবিক হয়ে গিয়েছে৷ তবে তাঁর প্রশাসনই আমাকে কাশ্মীরে ঢুকতে দিল না৷ তার মানে কাশ্মীরের পরিস্থিতি স্বাভাবিক নয়৷ অন্যদিকে প্রশাসনের জনসংযোগ দফতর ট্যুইট করে জানায়, পরিস্থিতকে ঘোরালো যাতে না করতে পারে তার জন্যই রাহুলদের কাশ্মীরে ঢুকতে দেওয়া হয়নি৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here