ডেস্ক: থিয়েটার নয়, রাস্তায় লুটোপুটি খেল বাংলা নাটকের স্বনামধন্য শিল্পি মনোজ মিত্রের নাটক গোষ্ঠী সুন্দরমের নাটকের সেট। আদালতের নির্দেশে যতীন দাস রোডের বাড়ি থেকে বের করে দেওয়া হল সুন্দরমের জিনিসপত্র।

নাট্যকার মনোজ মিত্র ও তাঁর দলের বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন যাবত ভাড়া না দেওয়ার অভিযোগ তুলে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন সংশ্লিষ্ট বাড়ির মালিক। এরপরই কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়া হয় সুন্দরমের সব জিনিসপত্র। সূত্রের খবর, বিগত প্রায় ৬০ বছর ধরে ওই বাড়িটি ভাড়া নিয়ে সেখানে রিহার্সেল করত মনোজবাবুর সুন্দর। কিন্তু সম্প্রতি বাড়িওয়ালা অভিযোগ তোলেন, কয়েক বছর যাবত রিহার্সেল বন্ধ ছিল। ভাড়ার টাকা চাইলেও মনোজবাবু তা দিচ্ছিলেন না বলেও অভিযোগ করেছিলেন বাড়ির মালিক। বাড়িটির কিন্তু এখন বাড়িওয়ালার অভিযোগ, গত কয়েক বছর ধরে কিছুই হত না ওই ঘরে। এমনকী বাড়ির ভাড়াও দিচ্ছিলেন না মনোজ মিত্র।

বেশ কয়েক বছর ধরেই বাড়িটি নিয়ে আদালতে মামলা চলছিল। অবশেষে গতকাল আদালত বাড়িওয়ালার পক্ষেই রায় দেয়। তারপরই শুরু হয় ঘর ফাঁকা করার প্রক্রিয়া। এহেন অবস্থায় রাস্তায় নেমে আসার পর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দ্বারস্থ হয়েছেন মনোজ মিত্র। সুন্দরমের তরফে বহু গুরুত্বপূর্ণ নথি ও নাটকের সেট নষ্ট করারও অভিযোগ তোলা হয়েছে। ঘর ফাঁকা করার আগে কোনও নোটিশ দেওয়া হয়নি বলেও অভিযোগ তুলেছে নাট্য সংস্থাটি। অন্যদিকে, বাড়ির মালিক সংবাদ মাধ্যমকে জানান, আদালতের রায় ও আইন মেনেই তিনি সবকিছু করেছেন।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here