ডেস্ক: শবরীমালা বিতর্কের জট কিছুতেই কাটছে না। শুক্রবার আয়াপ্পা ভক্তদের জন্য খোলা হয় শবরীমালা মন্দিরের দরজা। আজকেই এই মন্দিরে প্রবেশ করার পরিকল্পনা নিয়েছেন পুনের সমাজকর্মী তৃপ্তি দেশাই। কিন্তু মন্দির তো দূরের কথা বিমানবন্দরের মুখে আটকে দেওয়া হয় তাঁকে। সেখানেই আয়াপ্পা ভক্তরা বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে। শবরীমালা মন্দির প্রসঙ্গে সুপ্রিম কোর্ট সমস্ত বয়সের মহিলাদের মন্দিরে প্রবেশাধিকার দিলেও তা মানতে নারাজ আয়াপ্পা ভক্তরা। তারা বিমান্দরের মধ্যেই বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে। তবে এই বিক্ষোভকারীদের মধ্যেও বেশ কয়েকজন কট্টর হিন্দুত্ববাদী বিজেপি সংগঠনের সদস্যও রয়েছেন।

এদিকে দেশাই জানিয়েছেন, তিনি বিমানবন্দর থেকে পুলিশি নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেন। কিন্তু সেই পুলিশি ঘেরাটোপের মধ্যেই হোটেলে পৌঁছানোর জন্য ট্যাক্সি ডাকতে গেলেও বাধা পান তাঁরা। কোনও ট্যাক্সি ড্রাইভারই তাঁকে নিয়ে যেতে রাজী হননি। দেশাই পুলিশকে জানান, কোচির একাধিক হোটেলে তাঁকে আয়াপ্পা ভক্তরা এসে হুমকি দিতে থাকে। ফলে তিনি নিরাপত্তার অভাব অনুভব করছেন। তৃপ্তি দেশাই কারালার মুখ্যমন্ত্রীকে ফোন করে জানিয়েছেন তিনি প্রাণহানির আশঙ্কায় ভুগছেন। এখানে যে কোনও মুহুর্তে তাঁর উপর হামলা চলতে পারে। তৃপ্তি দেশাই সংবাদমাধ্যমকে জানান, ‘কিন্তু তিনি কোনও মতেই আয়াপ্পা দেবের দর্শন না করে সেখান থেকে যাবেন না। যে কোনও পরিস্থিতিতেই তিনি সেখান থেকে যাবেন না।’ অন্যদিকে তৃপ্তি দেশাইয়ের বিরোধিতায় সরব হয়েছেন আয়াপ্পা ভক্তরা। তাঁর বিরুদ্ধে শ্লোগান দিয়ে বাইকে করে বারবার টহল দেওয়া শুরু করেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here