ডেস্ক: এক আজব কাণ্ড! ছাত্রীদের অন্তর্বাসের রং কি হবে টা নাকি এবার ঠিক করবে স্কুল। এমন্তাই নির্দেশিকা জারি করে জানিয়েছে পুনের এমআইটি স্কুল কর্তৃপক্ষ। ছাত্রীদের ডায়েরিতে লিখে দেওয়া হল এখন থেকে তাদের সাদা কিংবা ধূসর রঙের অন্তর্বাস পরেই স্কুলে আসতে হবে। এমনই নির্দেশিকা জারির পর ক্ষোভে ফেটে পড়েন অভিভাবকরা। তারা বলেছেন যে, ছাত্রীরা কী রঙের অন্তর্বাস পরবে সেটা নিয়ে স্কুলের ডায়েরিতে লেখা ঠিক নয়। কারণ ছাত্রী এবং অভিভাবকরা সবাই পরিণত, তাই কী ধরনের জিনিস পরা উচিত সেটা সবার নিজস্ব ব্যাপার। এই বিষয়টিকে নিয়ে অভিভাবকরা শুধু প্রশ্নই তোলেননি, যেভাবে স্কুল কর্তৃপক্ষ বিষয়টিকে লাগু করতে চাইছে তা নিয়েও বেজায় চটেছেন অভিভাবকরা। কিন্তু স্কুল অধ্যক্ষ পদ্মাগিরি এই পোশাক বিধির নীতিকে সমর্থন জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন যে, ছাত্রীদের সাদা পোশাকের নিচে অন্তর্বাসের রং যদি অন্যকিছু হয় তাহলে ছাত্রীরা ইভটিজিংএর শিকার হতে পারে। সে কথা ভেবেই এই নিদান দিয়েছে স্কুল কর্তৃপক্ষ। পাশাপাশি এই সিদ্ধান্তকে বিশুদ্ধ বলেও বর্ণনা করেছেন তারা।

সূত্রের খবর, শুধু অন্তর্বাসের রং নিয়ে নয়, স্কুলের লাইব্রেরি ব্যবহারের জন্য ছাত্রীদের কাছ থেকে বাড়তি টাকা নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে স্কুলের বিরুদ্ধে। ছাত্রীদের অভিযোগ, ইতিমধ্যেই তারা সব ফি জমা দিয়ে দিয়েছে, তাহলে এই বাড়তি টাকা তারা কিসের জন্য দেবে? এই নিয়েও উঠছে প্রশ্ন। আরও অভিযোগ করে বলা হয়েছে যে, ছাত্রীদের বারবার শৌচাগারে যেতে বাধা দেওয়া হয় স্কুল কর্তৃপক্ষ থেকে। ছাত্রীদের ডায়েরিতে লিখে দেওয়া হয়েছে, ছাত্রীরা যদি স্কুলে খাওয়ার জল কিংবা বিদ্যুৎ বেশি ব্যবহার করে তাহলে ৫০০ টাকা জরিমানা করা হবে। এসব বিষয় নিয়ে অভিভাবকরা রাজ্যের স্কুল শিক্ষা দপ্তরের ডিরেক্টরের সঙ্গে দেখা করে তাদের অভিযোগ জানিয়েছেন।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here