মহানগর ওয়েবডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী লকডাউন নিয়ে সরকারিভাবে কিছু ঘোষণা করার আগেই এবার লকডাউন বাড়ানোর কথা ঘোষণা করল পঞ্জাব। ওড়িশার পর দ্বিতীয় রাজ্য হিসেবে আগামী ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউন এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং। শেষ পাওয়া খবরে, পঞ্জাবে করোনা আক্রান্ত ১৩২ জন রোগী এখনও পর্যন্ত ধরা পড়েছে। যাদের মধ্যে ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে এবং ৫ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি গিয়েছেন।

শুক্রবার ফের একবার কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে স্পষ্ট করে দেওয়া হয় যে দেশে এখনও পর্যন্ত তৃতীয় স্টেজ বা গোষ্ঠী সংক্রমণের কোনও লক্ষ্য দেখা যায়নি। যদিও মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিং উলটো সুর গেয়েছেন। তাঁর রাজ্যে গোষ্ঠী সংক্রমণের ইঙ্গিত স্পষ্টভাবে পাওয়া গিয়েছে বলে দাবি করেছেন তিনি। অমরিন্দর বলেছেন, ‘বৃহস্পতিবার কোনও ভ্রমণের ইতিহাস ছাড়াই ২৭ জন করোনা আক্রান্ত ধরা পড়েছে। ফলে এটা বলা যেতেই পারে এদের মধ্যে বেশিরভাগই গোষ্ঠী সংক্রমণের নমুনা।’ অন্যদিকে এদিন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তরফে দাবি করা হয়, ‘আমাদের লকডাউন যথাযথবভাবে পালন করতে হবে। দেশে এখনও গোষ্ঠী সংক্রমণের ঘটনা ঘটেনি বলেই আমরা আরও একবার জানিয়ে দিতে চাই।’

দিল্লি এবং মুম্বইয়ের বিস্তীর্ণ এলাকাকে ইতিমধ্যেই করোনা ভাইরাস ছড়ানোর হটস্পট হিসেবে চিহ্নিত করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। পার্শ্ববর্তী রাজ্য হিসেবে তাই অতিরিক্ত সতর্কতা দেখাচ্ছে পঞ্জাব। এদিন এক ঘোষণার মাধ্যমে কৃষিকাজে সবরকম ছাড় দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন অমরিন্দর সিং। তবে ক্রমশ যেভাবে করোনা দেশজুড়ে নিজের জাল বিছিয়ে চলেছে তাতে আগামী ১৪ এপ্রিল কোনও ভাবেই লকডাউন তুলে নেওয়ার কোনও সম্ভাবনা বিশেষজ্ঞরা দেখতে পাচ্ছেন না। একাধিক রাজ্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কাছে লকডাউন না তোলার আবেদন জানিয়েছেন। ফলে প্রধানমন্ত্রীও একি পথেই হাঁটতে পারেন বলে মনে করা হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here