মহানগর ওয়েবডেস্ক: রাজস্থানে দলীয় সঙ্কট সদ্য সামলানো হয়েছে, মধ্যপ্রদেশের দলীয় কোন্দলে সরকারই হাতছাড়া হয়ে গিয়েছে। গুটিকয়েক রাজ্যে সরকার কোনওক্রমে অস্তিত্ব বজায় রাখলেও দলের নেতা কর্মীদের পুরনো অভ্যাস কিছুতেই বদল হওয়ার নয় ভারতের জাতীয় কংগ্রেসের। এবার প্রকাশ্যে চলে এসেছে পঞ্জাব কংগ্রেসের অভ্যন্তরীণ কাজিয়া। প্রধান কুশীলবরা হলেন মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিং ও রাজ্যের  সাংসদ প্রতাপ সিং বাজওয়া।

সাংসদ বাজওয়া প্রকারন্তরে বলেই দিলেন মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিং–এর মাথা খারাপ হয়ে গিয়েছে কারণ তারই দলের সাংসদ বিষমদ কাণ্ডে ১২১ জনের মৃত্যুর বিষয়ে তাকেই প্রশ্ন করেছেন। সংবাদ সংস্থাকে সাংসদ বলেন, ‘’আমরা (প্রতাপ সিং বাজওয়া ও রাজ্যসভার সাংসদ শামসের সিং দুল্লো) বিষ মদ কাণ্ডে ১২১ জনের মৃত্যু নিয়ে প্রশ্ন তোলায় ক্যাপ্টেন সাহেবের (অমরিন্দর সিং) মাথা খারাপ হয়ে গিয়েছে কারণ ওনার দলের সাংসদই ওনাকে প্রশ্ন করছে।‘’

তাদের প্রশ্ন করার কারণ ব্যাখ্যা করতে গিয়ে বাজওযা বলেন, ‘’দু’বছর আগে অমৃতসরে ট্রেন দুর্ঘটনায় ৬০ জন মানুষের মৃত্যু হল, আপনি একটা ‘সিট’ গঠন করলেন কিন্তু তার কোনও ফল পাওয়া গেল না। তারপর বাটালা’র বাজি কারখানায় বিস্ফোরণ হল, আবারই ‘সিট’ গঠিত হল এবং কোনও ফল হল না। বিষ মদের ক্ষেত্রেও একই ব্যাপার। তাই আমরা জিজ্ঞাসা করছি,  অমরিন্দর সিং–এর হাতে আবগারি দফতর রয়েছে বলেই কি জলন্ধরের কমিশনর তদন্ত  করবেন। (মনে রাখতে হবে) রাজ্যের পুলিশ মন্ত্রীও কিন্তু অমরিন্দর সিং।‘’

বিষ মদ কাণ্ড নিয়ে তার সক্রিয়তার কারণ বলতে গিয়ে সাংসদ বলেন, ‘’আমি রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করেছিলাম আবগারি দফতরের ক্ষতির পরিমাণ নিয়ে কথা বলতে। বেআইনি মদের কারবারিদের দ্বারা এটা একটা হত্যাকাণ্ড বলে যদি উনি (অমরিন্দর সিং) মনে করেন তাহলে আমরা রাজ্যপালকে মেমোরেন্ডাম দেব যে এই বিষমদ কাণ্ডের তদন্তভার সিবিআই বা ইডি’কে দিয়ে করানো হোক। এটা শুনেই ওনার মাথা খারাপ হয়ে গিয়েছে। ব্যাপারটা এতদূর গড়িয়েছে যে আমার পুলিশি নিরাপত্তা পর্যন্ত তুলে নেওয়া হয়েছে।‘’

বিষ মদ খেয়ে পঞ্জাবের ১২১ জনের মৃত্যুর বিষয়ে বাজওয়া সরাসরি পঞ্জাবের ডিজিপি দিনকর গুপ্তাকে চিঠি লেখেন। মুখ্যমন্ত্রী বিষয়টিকে মোটেই ভালো ভাবে গ্রহণ করেননি। তিনি বাজওয়াকে বলেন এই বিষয়ে তাকে চিঠি লিখতে অথবা সরকারের কার্যকলাপ নিয়ে বাজওয়া’র যদি কোনও ক্ষোভ থাকে তাহলে দিল্লির হাই কম্যান্ডকে জানাতে। সেই প্রসঙ্গেই সাংসদ জানান,’’আমি ক্যাপটেন অমরিন্দর সিং–এর কাছে জানতে চাই উনি গণতন্ত্রে বিশ্বাস করেন কিনা। আপনি গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে নির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রী, পাতিয়ালার মহারাজা নন।‘’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here