punjav and mumbai

মহানগর ওয়েবডেস্ক: করোনা ভাইরাস সংক্রমণের নিরিখে বর্তমানে ভারত রয়েছে দু-নম্বর স্টেজে। এই সংক্রমণের হার স্টেজ তিনে গেলেই বিপদ। বর্তমানে যে ভাইরাস এক ব্যক্তি থেকে অন্য ব্যক্তির শরীরে সংক্রামিত হচ্ছে, সেটাই এক গোষ্ঠী থেকে অন্য গোষ্ঠীর শরীরে ছড়িয়ে যেতে পারে। সেই আতঙ্কেই কাঁপছে ভারত। যেন তেন প্রকারে ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে তাই সবরকম ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। এদিনই করোনা আতঙ্কে পঞ্জাবের পাবলিক ট্রান্সপোর্ট বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিংয়ের সরকার।

পঞ্জাবে অবশ্য মাত্র দু’জনের শরীরে ধরা পড়েছে করোনা ভাইরাস। তবে আতঙ্ক যেভাবে মানুষকে গ্রাস করছে তাতে লাগাম দেওয়া আবশ্যক হয়ে পড়েছে। স্কুল-কলেজে ইতিমধ্যেই ছুটি ঘোষণা হয়েছে সে রাজ্যেই। একই সঙ্গে এদিন থেকেই সরকারি ও বেসরকারি গণপরিবহনেও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। কোথাও ২০ জনের বেশি একসঙ্গে জমায়েত করা যাবে না এই নির্দেশও দিয়েছে সরকার।

তবে দেশের যে কটি রাজ্যে করোনা ছড়িয়েছে তাদের মধ্যে সবচেয়ে গুরুতর অবস্থা মহারাষ্ট্রে। সেখানে ইতিমধ্যেই ৪৫ জনের শরীরে এই ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গিয়েছে। সেই কারণে মুম্বইয়ের অন্যতম জনপ্রিয় এবং জরুরি পরিষেবাও বন্ধ রাখা হয়েছে। তা হল ডাব্বাওয়ালাদের পরিষেবা। আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত এই পরিষেবা বন্ধ রাখা হবে বলে জানানো হয়েছে। করোনা সংক্রমণ ঠেকাতেই এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলে খবর। মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে আবেদন করেছেন, লোকাল ট্রেনে যাতে বেশি ভিড় না করা হয়। প্রয়োজনে সেখানেও ট্রান্সপোর্ট পরিষেবা বন্ধ রাখা হতে পারে বলে জানানো হয়েছে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here