kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: পাকিস্তানে গণতন্ত্রর নামে প্রহসন চলছে৷ পাকিস্তানের সেনা বাহিনীর হাতের পুতুল প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান৷ তাদের অঙ্গুলি হেলনেই চলতে বাধ্য হন রাজনীতিতে আনকোরা ইমরান৷ এমনটাই দাবি করেছে আমেরিকার সিআর এস-এর প্রতিবেদন৷ প্রতিবেদন অনুসারে,পাকিস্তানে জাতীয় নির্বাচন হয় নামকাওয়াস্তে৷ আসলে দেশটা চালায় সেখানকার সেনা বাহিনী৷ সেনাবাহিনীর সাহায্যে ক্ষমতা দখল করেছে ইমরানের পাকিস্তান তেহরিক-এ- ইনসাফ(পিটিআই) পার্টি বলে মনে করে সিআরএস৷ এই রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে পাকিস্তানের সুরক্ষা ও বিদেশনীতির মতো অতি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় পাক সেনাবাহিনী নিয়ন্ত্রণ করে৷ এর ফলে দক্ষিণ এশিয়ার শান্তি বিঘ্নিত হচ্ছে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করছে আমেরিকা৷ উল্লেখ্য মার্কিন সাংসদদের সঙ্গে কথা বলেই সিআরএস এই প্রতিবেদন তৈরি করেছে৷ আমেরিকা মনে করে সেনাবাহিনীর জন্য প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান পাকিস্তান থেকে জঙ্গিদের চাইলেও উচ্ছেদ করতে পারবে না৷

পাকিস্তান মুসলিম লিগ(নওয়াজ) কে ঠেকাতে ইমরান খানের দল পিটিআই সরাসরি সেনা ও পাক গুপ্তচর সংস্থার সাহায্য নিয়েছিল৷ এমনটাই দাবি করেছে মার্কিন সিআর এস-এর প্রতিবেদন৷ আমেরিকার এই সমীক্ষায় পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে প্রবলভাবে সমালোচনা করেছে৷ এই প্রতিবেদন থেকে ইমরানের পাকিস্তান সম্পর্কে মার্কিনি সাংসদদের দৃষ্টিভঙ্গির স্পষ্ট ছবি প্রকাশিত হয়েছে৷ উল্লেখ্য আমেরিকা পাকিস্তানকে আর্থিক সাহায্য কমিয়ে দিয়েছে৷ সন্ত্রাসবাদ উচ্ছেদে ইমরানের অসহযোগিতা নিয়ে বার বার সমালোচনায় সরব হয়েছে আমেরিকা৷

ইমরান খান প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর নয়া পাকিস্তান গড়ার আশ্বাস দিয়েছিলেন৷ তিনি জনকল্যানমূলক পাকিস্তান গঠন করার স্বপ্ন দেখেন৷ সিআরএস-এর এই প্রতিবেদন অনুসারে ইমরানের স্বপ্নকে কখনওই সফল হতে দেবে না সেদেশর সেনা বাহিনী৷ তারাই পাকিস্তানে দণ্ডমুন্ডের কর্তা৷সেনার নির্দেশ ছাড়া পাকিস্তানের কোনও সরকারের স্বাধীনভাবে চলা অসম্ভব বলে মনে করে মার্কিন আইন প্রণেতাদের অধিকাংশ৷ মধ্যবিত্ত ও তরুণ প্রজন্মকে কাছে টানতে ইমরান সচেষ্ট হলেও বাস্তবে পাকিস্তানের ছবিটা উল্টো৷পাকিস্তানের অর্থনৈতিক ব্যবস্থার শোচনীয় অবস্থা৷ সেই অবস্থায় ইমরান সরকার পাকিস্তানে অর্থনৈতিক জরুরী অবস্থা ঘোষণা করতে বাধ্য হয়েছে৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here