news bengali

মহানগর ওয়েবডেস্ক: এটিকে-র সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধে মোহনবাগান আইএসএলে নিজেদের নাম সরকারি ভাবে নথিভুক্ত করে ফেলেছে। কিন্তু ইস্টবেঙ্গল যে এখন অথৈ জলে। আইএসএল কেন লাল-হলুদের আই-লিগ খেলা নিয়েই এখন প্রবল সংশয়। প্রশ্ন উঠছে ইস্টবেঙ্গল আদৌ এই মরসুমে খেলতে পারবে তো!

ঠিক কী নিয়ে বিপাকে ময়দানের লেসলি ক্লডিয়াস সরণির শতবর্ষের ক্লাব? ইস্টবেঙ্গলকে আগামী ৯ দিনের মধ্যে অল ইন্ডিয়া ফেডারেশনকে ক্লাব লাইসেন্সিংয়ের যাবতীয় নথি জমা দিতে হবে। আর এই কাগজপত্র দিতে না-পারলে ইস্টবেঙ্গলের এই মরসুমের মতো আই-লিগ বা আইএসএল কোনওটাই খেলা হবে না।গ

গত মঙ্গলবার রাতেই ক্লাব লাইসেন্সিংয়ের যাবতীয় প্রয়োজনীয় কাগজপত্র আই লিগ আর আইএসএল ক্লাবগুলোকে পাঠিয়ে দিয়েছে সর্বভারতীয় ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থা। সেই কাগজপত্রে সই আর স্ট্যাম্পিং করিয়ে ৯ দিনের মধ্যে ফেডারেশনের কাছে ফেরত পাঠাতে হবে দুই টুর্নামেন্টে অংশ নেওয়া প্রতিটি ক্লাবকেই।

এবার ইস্টবেঙ্গলের সমস্যা ঠিক এখানেই। নিয়ম মেনে ফেডারেশন ক্লাব লাইসেন্সিংয়ের কাগজপত্র কোয়েসকে পাঠিয়েছে। কিন্তু কোয়েস আর ইস্টবেঙ্গল আলাদা হয়ে গিয়েছে। কিন্তু যাবতীয় সমস্ত স্পোর্টিং রাইটস রয়েছে কোয়েসের দখলেই। এনওসি সার্টিফিকেট দেয়নি তারা।
ফেডারেশনের কাছে ইস্টবেঙ্গল ক্লাবকে ফের নতুন নামে লাইসেন্সিং করাতে হবে। সেই নিয়ে ফেডারেশন তথ্য চেয়ে পাঠাতে চলেছে লাল-হলুদ ক্লাবের কাছে। এখনও বেশ কয়েকটা প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে লাল হলুদকে। ফলে বুধবার অর্থাৎ আজ সকাল থেকে ইস্টবেঙ্গলের এক প্রকার অস্তিত্ব রক্ষার লড়াই শুরু। কিন্তু তাদের হাতে যে সময় একেবারে ক

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here